চট্টগ্রাম সোমবার, ০১ মার্চ, ২০২১

সর্বশেষ:

৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ | ২:৩৫ অপরাহ্ণ

অনলাইন ডেস্ক

মামলা থেকে অব্যাহতি শর্তে স্বাভাবিক জীবনে ফিরতে চায় জঙ্গিরা

জঙ্গিবাদে জড়িয়ে পরার পর ভুল বুঝে স্বাভাবিক জীবনে আসতে চাচ্ছেন এমন নারী-পুরুষদের যোগাযোগের জন্য একটি ‘ইমেইল হটলাইন’ চালু করেছে র‌্যাব। [email protected] এই ইমেইল চালু হওয়ার ১৫ দিনেই অভাবনীয় সাড়া পাওয়া গেছে।

র‌্যাবের কর্মকর্তারা বলছেন, সম্প্রতি আনুষ্ঠানিকভাবে র‌্যাবের ‘ডি-র‌্যাডিকালাইজেশন এন্ড রিহ্যাবিলিটেশন প্রোগ্রাম’ এর অধীনে জঙ্গিদের স্বাভাবিক জীবনে ফেরানোর এই প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। ইতোমধ্যে এই প্রোগ্রামের আওতায় গত ১৪ জানুয়ারি ৯ তরুণ-তরুণী আত্মসমর্পণ করেছেন। এর আগেও ২০১৬ সালে হলি আর্টিজানে নৃশংস জঙ্গি হামলার ঘটনার পর সাত জঙ্গিকে আত্মসমর্পণ করায় র‌্যাব।

ডি-র‌্যাডিকালাইজেশন এন্ড রিহ্যাবিলিটেশন প্রোগ্রামটি সমন্বয় করছে র‌্যাবের গোয়েন্দা শাখা। গোয়েন্দা শাখা সূত্র বলছে, বিভিন্ন জঙ্গি সংগঠনের তিন-চার জন জঙ্গি আত্মসমর্পণের জন্য ইতোমধ্যে র‌্যাবের সঙ্গে যোগাযোগ করেছে। র‌্যাব তাদের সঙ্গে সার্বক্ষণিক যোগাযোগ রাখছে। তাদের সঙ্গে আলোচনা খুবই প্রাথমিক পর্যায়ে। তবে ভিন্ন ভিন্ন জঙ্গি সংগঠনের এই সদস্যদের নামে বেশ কিছু মামলা আছে। আত্মসমর্পণের শর্তে তারা মামলা থেকে অব্যাহতিও চেয়েছে। র‌্যাব এরই মধ্যে তাদের কাছে থেকে মামলার কাগজপত্র চেয়ে নিয়েছে। সেগুলোর যাচাই-বাছাই চলছে।

র‌্যাবের মিডিয়া উইংয়ের পরিচালক লে. কর্নেল আশিক বিল্লাহ জানান, ‘হটলাইন চালুর পর আমরা আশানুরূপ সাড়া পাচ্ছি। তবে সংখ্যা বললে এক ধরনের ভুল বার্তা যেতে পারে বিধায় আমরা সঠিক সংখ্যাটি বলতে চাচ্ছি না। যারা উৎসাহিত হয়ে আমাদের সঙ্গে যোগাযোগ করছেন আমরা তাদের অনুপ্রাণিত করছি, তাদের সঙ্গে কথা বলছি। পাবলিক পর্যায়ে যারা যোগাযোগ করছে, তারা প্রথমে নিশ্চিত হতে চায় এটা আসলেই র‌্যাবের কিনা। পরবর্তীতে তারা নিশ্চিত হলে, তাদের সঙ্গে আমাদের যোগাযোগ স্থাপিত হচ্ছে।’

র‌্যাবের এই কর্মকর্তা বলেন, ‘এসব মানুষের উদ্দেশে আমাদের বার্তা থাকবে, তারা যেন সুস্থ স্বাভাবিক জীবনে ফেরত আসেন। যেসব জঙ্গির ফৌজদারি বা অন্য কোনও অপরাধের সঙ্গে এখনও পর্যন্ত সম্পৃক্ততা হয়নি, তারা স্বাভাবিক জীবনে ফিরতে চাইলে এবং র‌্যাবকে মেইলে জানালে, আমাদের পক্ষ থেকে সর্বোচ্চ সহযোগিতা করব। আর ফৌজদারি কোনও অপরাধের সঙ্গে যদি কেউ জড়িত থাকেন, তারাও আবেদন করতে পারবেন। তবে তাদের আইনি প্রক্রিয়ার মাধ্যমে আসতে হবে। তাদেরও আইনি সহযোগিতা করব।’

ভুল বুঝতে পেরে যারা জঙ্গিবাদ থেকে ফিরে এসেছে, তাদের সমাজে গ্রহণ করার জন্য সবার প্রতি অনুরোধ জানিয়ে র‌্যাবের মহাপরিচালক (ডিজি) চৌধুরী আবদুল্লাহ আল মামুন জানুয়ারি মাসে জঙ্গিদের আত্মসমর্পণ অনুষ্ঠানে বলেন, ‘জঙ্গিবাদ একটা আদর্শিক সমস্যা। তাই এটা মোকাবিলার জন্য সঠিক ধর্মীয় ব্যাখ্যা প্রয়োজন। তাদের সমাজের মূলধারায় ফিরিয়ে আনতে চাই যেন সমাজ তাদের আন্তরিকতার সাথে গ্রহণ করে নেয়। ‘তুই জঙ্গি’ বলে যেন তাকে আবারও নেতিবাচক পথে ঠেলে দেয়া না হয়।’

পূর্বকোণ/আরপি

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 174 People

সম্পর্কিত পোস্ট