চট্টগ্রাম শনিবার, ০৬ মার্চ, ২০২১

২৮ জানুয়ারি, ২০২১ | ৩:৩৯ অপরাহ্ণ

অনলাইন ডেস্ক

করোনার টিকা নিলেন দুই প্রতিমন্ত্রীসহ পাঁচ শতাধিক লোক

রাজধানীর পাঁচটি হাসপাতালে শুরু হয়েছে করোনার টিকাদান কর্মসূচি। করোনার টিাকা দেয়ার দ্বিতীয় দিনে আজ বৃহস্পতিবার (২৮ জানুয়ারি) প্রতিমন্ত্রী, আমলা, চিকিৎসক, নার্স এবং স্বাস্থ্যকর্মীসহ ৫ শতাধিক ব্যক্তি টিকা নিয়েছেন।
আজ সকাল ১০টা ৩৫ মিনিটে প্রথম করোনার টিকা নিয়েছেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী (আইসিটি) জুনাইদ আহমেদ পলক। মন্ত্রীপরিষদ সদস্যদের মধ্যে তিনি প্রথম করোনার টিকা নিলেন।
এসময় তিনি বলেন, আমি টিকা নিয়েছি, কিন্তু আমার কোন সমস্যা হয়নি। টিকা নেয়ার পর আমার শরীরে কোন পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা যায়নি। তাই আপনারা বিভ্রান্ত না হয়ে সুযোগ পেলে ভ্যাকসিন নিয়ে নেবেন।
পাশাপাশি ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ করোনার টিকা নিয়েছেন।

এরপর বেলা ১১টায় স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের সচিব মো. আব্দুল মান্নান ও তথ্য সচিব খাজা মিয়া করোনার টিকা নেন। এসময় উপস্থিত ছিলেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক।
এসময় স্বাস্থ্যমন্ত্রী জানান, গতকাল যারা টিকা নিয়েছেন তারা সবাই সুস্থ আছেন। সুতরাং অপপ্রচারে কান না দিয়ে সবাইকে ভ্যাকসিন নেয়ার আমন্ত্রণ জানান তিনি।

এদিকে আজ সকালে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) ভিসি অধ্যাপক কনক কান্তি বড়ুয়া প্রথম টিকা নিয়ে ওই হাসাপাতালের টিকা কার্যক্রমের সূচনা করেন।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় ও মুগদা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে বৃহস্পতিবার ৪শ স্বাস্থ্যকর্মী করোনার টিকা দেয়ার কথা রয়েছে। পাশাপাশি কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে ১শ ও বাংলাদেশ-কুয়েত মৈত্রী হাসপাতালে ৬০ জন স্বাস্থ্যকর্মীকে এ টিকা দেয়া হবে বলে জানা যায়।

আজ এই পাঁচটি হাসপাতালে পাঁচ শতাধিক ব্যক্তিকে টিকা দেয়া হবে। টিকা দেয়ার পর ৬ই ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত টিকাদান বন্ধ থাকবে। টিকা গ্রহণকারী ব্যক্তিদের পর্যবেক্ষণে রাখা হবে। ৮ই ফেব্রুয়ারি থেকে সারাদেশে আবারও টিকাদান কর্মসূচি শুরু হবে।

পূর্বকোণ/এএ

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 465 People

সম্পর্কিত পোস্ট