চট্টগ্রাম বৃহষ্পতিবার, ০৪ মার্চ, ২০২১

সর্বশেষ:

ফাইল ছবি

২৫ জানুয়ারি, ২০২১ | ৭:১০ অপরাহ্ণ

পূর্বকোণ ডেস্ক

শারীরিক উপস্থিতিতে একুশে বইমেলা, শুরু ১৮ মার্চ

ভার্চুয়ালি নয়, শারীরিক উপস্থিতিতে হবে অমর একুশে বইমেলা৷ আগামী ১৮ মার্চ থেকে শুরু হওয়া এবারের মেলা কত দিনব্যাপী হবে সে বিষয়ে এখনো কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি৷ মেলার আয়োজক প্রতিষ্ঠান বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক হাবীবুল্লাহ সিরাজী সোমবার (২৫ জানুয়ারি) সন্ধ্যায় এ তথ্য নিশ্চিত করেন ৷
হাবীবুল্লাহ সিরাজী বলেন, আগামী ১৮ মার্চ থেকে অমর একুশে বইমেলা শুরু হবে৷ তবে এই মেলা কত দিন চলবে সে বিষয়ে আমরা প্রকাশকদের সঙ্গে আলাপ করে সিদ্ধান্ত নেব৷ আমাদের ইচ্ছা ১৪ এপ্রিল অর্থাৎ পহেলা বৈশাখ পর্যন্ত বইমেলা আয়োজন করার। তবে সে সময় রমজান মাস শুরু হয়ে যাবে৷ সুতরাং আপত্তি উঠলে রমজান মাস শুরুর আগে মেলা শেষ করব৷
প্রথানুযায়ী, প্রতি বছরের পহেলা ফেব্রুয়ারি থেকে মাসব্যাপী অমর একুশে বইমেলা আয়োজিত হয়৷ তবে বৈশ্বিক মহামারি করোনার কারণে এ বছর পহেলা ফেব্রুয়ারি থেকে মেলা শুরু হবে না বলে আগেই জানিয়েছিলেন বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক হাবীবুল্লাহ সিরাজী৷
এর আগে গত ১০ ডিসেম্বর বাংলা একাডেমির নির্বাহী পরিষদের বৈঠকে ২০২১ সালের অমর একুশে গ্রন্থমেলা সাময়িকভাবে স্থগিত করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। একইসঙ্গে করোনা পরিস্থিতি বিবেচনায় ভার্চ্যুয়ালি বইমেলার আয়োজনেরও সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। গণমাধ্যমে এ খবর প্রকাশিত হওয়ার পর থেকেই ক্ষোভ প্রকাশ করেন লেখক-সাহিত্যিকরা। বাংলা একাডেমির এ সিদ্ধান্তকে ‘একতরফা’ ও ‘স্বেচ্ছাচারী’ বলে গণমাধ্যমে বিবৃতি দেন প্রকাশকরা।
এর পরিপ্রেক্ষিতে ১৩ ডিসেম্বর সকালে বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক হাবীবুল্লাহ সিরাজীর সঙ্গে বৈঠকে বসেন প্রকাশকদের দুই সমিতি-বাংলাদেশ পুস্তক প্রকাশক ও বিক্রেতা সমিতি এবং বাংলাদেশ জ্ঞান ও সৃজনশীল প্রকাশক সমিতির নেতারা। বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয়, ভার্চুয়ালি নয়, শারীরিক উপস্থিতিতেই ২০২১ সালের অমর একুশে গ্রন্থমেলা আয়োজিত হবে। তবে প্রথানুযায়ী, পহেলা ফেব্রুয়ারি থেকে এবারের বইমেলা শুরু হচ্ছে না। এজন্য প্রকাশকদের কাছ থেকে প্রস্তাব চাওয়া হয় বাংলা একাডেমির পক্ষ থেকে। এ সিদ্ধান্তের পরিপ্রেক্ষিতে ১৫ ডিসেম্বর শারীরিক উপস্থিতিতে ১৮ ফেব্রুয়ারি থেকে ১৭ মার্চ পর্যন্ত মাসব্যাপী অমর একুশে বইমেলা আয়োজনের জন্য বাংলা একাডেমিকে লিখিত প্রস্তাব দেয় প্রকাশকদের দুই সংগঠন বাংলাদেশ পুস্তক প্রকাশক ও বিক্রেতা সমিতি এবং বাংলাদেশ জ্ঞান ও সৃজনশীল প্রকাশক সমিতি।

পূর্বকোণ/আরপি

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 485 People

সম্পর্কিত পোস্ট