চট্টগ্রাম শনিবার, ১৬ জানুয়ারি, ২০২১

৩০ ডিসেম্বর, ২০২০ | ২:১১ অপরাহ্ণ

পূর্বকোণ ডেস্ক

স্কুল-কলেজ চালু ফেব্রুয়ারিতে

আগামী ফেব্রুয়ারি থেকে সীমিত আকারে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে সশরীরে ক্লাস শুরুর সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। সে লক্ষ্যে প্রস্তুতি শুরু হয়েছে বলে জানান তিনি। গতকাল মঙ্গলবার পাঠ্যপুস্তক বিতরণ-২০২১ ও সমসাময়িক বিষয় নিয়ে ভার্চুয়াল এক সংবাদ সম্মেলনে শিক্ষামন্ত্রী এসব কথা বলেন।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, ‘আগামী বছরের এসএসসি ও সমমান এবং এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষার্থীদের প্রস্তুতির জন্য সীমিত আকারে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে। এর মাধ্যমে ক্লাসরুমে বসিয়ে শিক্ষার্থীদের অসমাপ্ত সিলেবাস শেষ করে একটি প্রস্তুতিমূলক পরীক্ষা নেয়া হবে। তার মধ্যে এ দুই স্তরের পরীক্ষার্থীদের পাবলিক পরীক্ষায় অংশগ্রহণের জন্য প্রস্তুত করা হবে।’ তিনি বলেন, ‘ফেব্রুয়ারিতে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা সম্ভব হলে আগামী বছরের জুনে এসএসসি ও সমমান পরীক্ষা নেয়া হবে। এরপর জুলাই-আগস্টে এইচএসসি পরীক্ষার আয়োজন করা হবে। তবে করোনা পরিস্থিতির কারণে দীর্ঘদিন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় আগামী বছরের এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের সিলেবাস সংক্ষিপ্ত করে ক্লাস বসিয়ে তা পড়ানো হবে।’ এইচএসসি পরীক্ষার ফলাফল সম্পর্কে তিনি বলেন, ২০২০ শিক্ষাবর্ষের এইচএসসি পরীক্ষার ফলাফল তৈরি আছে। এ সংক্রান্ত অধ্যাদেশ জারি করা হলেই ২০২১ সালের জানুয়ারি মাসের প্রথম সপ্তাহের মধ্যে ফলাফল প্রকাশ করা হবে। তিনি বলেন, চলতি বছর জেএসসি ও জেডিসি পরীক্ষা না হওয়ায় বোর্ডগুলো থেকে শিক্ষার্থীদেরকে  সনদ দেওয়া হবে। তাদের সনদপত্রে কোনো জিপিএ থাকবে না। স্কুলে রোল নম্বরের পরিবর্তে আইডি কার্ড সিষ্টেম চালু হবে যা শিক্ষার্থীরা সারাজীবন বহন করতে পারবে। এই রোল নম্বরের কারণে অনভিপ্রেত যে প্রতিযোগিতা হয়; তার অবসান  হবে। আমরা চাইছি প্রতিযোগিতা নয়, সহযোগিতার মধ্য দিয়েই যেন একজন শিক্ষার্থী সামনে এগিয়ে যেতে পারে। এই জন্য আইডি নম্বর প্রক্রিয়া চালু হবে।’

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী মো. জাকির হোসেন, শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী, শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের সচিব মো. মাহবুব হোসেন, কারিগরি ও মাদরাসা বিভাগের সচিব আমিনুল ইসলাম, মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদফতরের মহাপরিচালক অধ্যাপক গোলাম ফারুক চৌধুরী, জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক নারায়ণ চন্দ্র সাহা, বিভিন্ন শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান।

পূর্বকোণ/এএ

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 1279 People

সম্পর্কিত পোস্ট