চট্টগ্রাম বৃহষ্পতিবার, ২৮ জানুয়ারি, ২০২১

সর্বশেষ:

২৮ ডিসেম্বর, ২০২০ | ৩:৫৪ অপরাহ্ণ

অনলাইন ডেস্ক

সরকারি কর্তৃত্ব বাড়িয়ে হজ-ওমরা ব্যবস্থাপনায় আসছে নতুন আইন

সুষ্ঠুভাবে হজ ও ওমরা ব্যবস্থাপনা করতে হজ ও ওমরা এজেন্সিদের জন্য আসছে নতুন আইন। এ আইনের ফলে
কোনো হজ ও ওমরা এজেন্সি সৌদিতে গিয়ে অপরাধ করলেও বাংলাদেশে সেই অপরাধ হয়েছে গণ্য করে বিচার করা হবে।

আজ সোমবার (২৮ ডিসেম্বর) মন্ত্রিসভার ভার্চুয়াল বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে ‘হজ ও ওমরা ব্যবস্থাপনা আইন ২০২০’ এর খসড়ার নীতিগত অনুমোদন দেয়া হয়েছে।
আইনের খসড়া অনুযায়ী হজ ও ওমরা ব্যবস্থাপনার দায়িত্ব সরকারের উপর ন্যস্ত থাকবে। এক্ষেত্রে হজ এজেন্সি অনিয়ম করলে আইন অনুযায়ী তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

বৈঠক শেষে মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম সচিবালয়ে এক ব্রিফিংয়ে সাংবাদিকদের জানান, এতদিন নীতিমালার মাধ্যমে হজ ব্যবস্থাপনা পরিচালিত হওয়ায় বেশি কিছু অসুবিধা হচ্ছিল।

তিনি আরও জানান, হজের চুক্তি হওয়ার পরে কেউ সৌদিতে গিয়ে ঠকালে ওই অপরাধ এই দেশে (বাংলাদেশে) হয়েছে বলে গণ্য করে এই আইন অনুযায়ী বিচার করা হবে।

এছাড়া হজ ও ওমরা এজেন্সিগুলো অনিয়ম করলে তাদের নিবন্ধন বাতিলের পাশাপাশি জরিমানা করা হবে।
অনিয়মের জন্য পর পর দুই বছর ওয়ার্নিং দেয়া হলে দুই বছরের জন্য লাইসেন্স বাতিল হবে।

মন্ত্রিপরিষদ সচিব জানান, হজ এজেন্সিগুলো অনিয়ম করলে তাদের নিবন্ধন বাতিলের পাশাপাশি সর্বোচ্চ ৫০ লাখ টাকা জরিমানা করা হবে। আর ওমরা এজেন্সি অনিয়ম করলে তারা নিবন্ধন খোয়ানোর সঙ্গে সর্বোচ্চ ১৫ লাখ পর্যন্ত জরিমানার মুখে পড়বে।

পূর্বকোণ/এএ

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 237 People

সম্পর্কিত পোস্ট