চট্টগ্রাম শুক্রবার, ২২ জানুয়ারি, ২০২১

২৫ নভেম্বর, ২০২০ | ৪:৪৯ অপরাহ্ণ

অনলাইন ডেস্ক

বাংলাদেশ গ্যাভি থেকে ৬ কোটি ৮০ লাখ টিকা আনবে

করোনারভাইরাসের বিস্তার রোধে নিম্ন ও মধ্যম আয়ের দেশগুলোতে ইমিউনাইজেশনে অর্থায়ন করা ‘দ্য ভ্যাকসিন এলায়েন্স-গ্যাভি’ এর থেকে ৬ কোটি ৮০ লাখ টিকা পাবে। 

বুধবার (২৫ নভেম্বর) স্বাস্থ্য অধিদপ্তরে সংবাদ সম্মেলন থেকে জানানো হয়, কোভ্যাক্স-কভিড-১৯ ভ্যাকসিনস গ্লোবাল একসেস ফ্যাসিলিটির উদ্যোগে ২০২১ সালে এই ভ্যাকসিন বাংলাদেশে আসবে। গ্যাভির পাশাপাশি এ উদ্যোগের যৌথ নেতৃত্বে আছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা এবং দ্য কোয়ালিশন ফর এপিডেমিক প্রিপেয়ার্ডনেস।

বিজ্ঞাপন

একজন মানুষকে ভ্যাকসিনের দুটি ডোজ নিতে হবে। প্রতি ডোজের দাম পড়বে ১৩৮-১৭০ টাকা।

অধিদপ্তরের সম্প্রসারিত টিকাদান কর্মসূচির পরিচালক ডা. সামসুল হক জানান, যারা আগে জাতীয় ভ্যাকসিন বিতরণ পরিকল্পনা জমা দেবে তারাই আগে ভ্যাকসিন পাবে। গ্যাভি যখন থেকে পরিকল্পনা জমা নেওয়া শুরু করবে, আশা করছি আমরা প্রথমদিনই আমাদের পরিকল্পনা জমা দিতে পারব।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল বাসার মোহাম্মদ খুরশীদ আলম সংবাদ সম্মেলনের প্রধান বক্তা ছিলেন।

বাংলাদেশ এর আগে ভারতীয় প্রতিষ্ঠান সেরামের সঙ্গে চুক্তি করে। সেখান থেকে আসবে তিন কোটি ডোজ ভ্যাকসিন। এই ভ্যাকসিনের দাম অনেক বেশি। প্রতি ডোজ ৫ ডলার (৪২৫ টাকা)।

প্রত্যেকের দুই ডোজ করে টিকা লাগবে। একটি ডোজের ২৮ দিন পর আরেকটি ডোজ দিতে হবে।

করোনাভাইরাসের টিকা কিনতে বাংলাদেশ দাতা সংস্থাগুলোর কাছে ঋণ সহযোগিতা চেয়ে ইতিমধ্যে চিঠি পাঠিয়েছে। ১৬ কোটি ৫০ লাখ মানুষের জন্য ২৫০ কোটি মার্কিন ডলারের প্রয়োজন। যা বাংলাদেশি মুদ্রায় ২১ হাজার ২৫০ কোটি টাকা।

পূর্বকোণ/পিআর

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 147 People

মন্তব্য দিন :

সম্পর্কিত পোস্ট