চট্টগ্রাম বৃহষ্পতিবার, ২১ জানুয়ারি, ২০২১

২৩ মে, ২০১৯ | ৬:৪৪ অপরাহ্ণ

পূর্বকোণ ডেস্ক

কৃষকবেশে ভাইরাল ছাত্রলীগ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী

ধানের দাম কম আর শ্রমিকের মূল্য বেশি হওয়ায় মাঠ থেকে পাকা ধান ঘরে তুলছেন না কৃষক। এ অবস্থায় গত মঙ্গলবার ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি মো. রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন ও সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী স্বাক্ষরিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে কৃষকদের ধান কাটাসহ সব ধরনের সহযোগিতা করতে সংগঠনটির নেতাকর্মীদের আহ্বান জানানো হয়।

এরপর দেখা যায়, গতকাল বুধবার রাজধানীর অদূরে আমিনবাজার এলাকায় নিজেই ধান কাটতে নেমে গেছেন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী। তার নেতৃত্বে স্থানীয় ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা ধান কাটেন। গতকাল সেই ধানকাটার দৃশ্য গোলাম রাব্বানী নিজের ফেসবুক একাউন্টে আপলোড করেন। ইতিমধ্যে সেই ছবি ভাইরাল হয়েছে। মন্তব্য জমা পড়ছে। শেয়ার হয়েছে পাঁচ শতাধিক। মন্তব্যের ঘরে সাইফুল ইসলাম ভূঁইয়া লিখেছেন, ‘দরিদ্র কৃষকদের ধান কেটে দিচ্ছেন বাংলাদেশ ছাত্রলীগের বিপ্লবী সাধারণ সম্পাদক দেশরত্ন শেখ হাসিনার স্নেহের ছাত্রনেতা ইতিবাচক ছাত্র রাজনীতির প্রমিথিউস গোলাম রাব্বানী ভাই।’ ফয়সাল কবির লিখেছেন, ‘অসহায় কৃষকের পাশে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ।’ অনেকেই লিখেছেন, ‘কৃষক বাঁচলে বাঁচবে দেশ, শেখ হাসিনার বাংলাদেশ।’

বিজ্ঞাপন

তবে শুধু প্রশংসাই নয়, সমালোচনামূলক ও নেতিবাচক মন্তব্যও পড়েছে বেশকিছু।

কৃষকবেশে গোলাম রাব্বানীর সেই ছবির মন্তব্যের ঘরে মীর মামুন অর রশীদ লিখেছেন, ‘ছাত্রলীগ কৃষকের ধান কেটে দিচ্ছে। ধন্যবাদ। তবে ছাত্রলীগের উচিত ধান কেটে নয়, জেলায় জেলায় কৃষকের কাছ থেকে সরাসরি প্রশাসনকে ধান ক্রয়ে আন্দোলন গড়ে তোলা।’ মো. তানভীর লিখেছেন, ‘প্রিন্ট করা টি-শার্ট আর কায়দা করে সাদা লুঙ্গি পরে কোমরে গামছা বেঁধে আপনি কোনো কৃষকের উপকার করতে যাননি। এটি ফটোসেশন আর লোকদেখানো কাজ ছাড়া আর কিছুই নয়।’ অন্য একজন লিখেছেন, ‘ধান কাটতে নেমে এত সাদা, পরিষ্কার কাপড় হয় কি করে?’

এটিএম মুস্তফা লিখেছেন, ‘সব কাজ সবাইকে দিয়ে হয় না। আমি ছাত্রলীগের একজন কর্মী হিসেবে মনে করি, এটা শুধু মিডিয়ায় আলোচিত হওয়া ছাড়া আর কিছুই নয়। কেউ এখন বোকা নয়।’

প্রসঙ্গত, এবার বোরো ধান আবাদ করে উৎপাদন খরচ উঠছে না বলে দেশে কৃষকদের বিক্ষোভ চলছে। ধানের দাম নিয়ে অসন্তোষ থেকে নিজের পাকা ধানের ক্ষেতে কৃষকের আগুন দেয়ার ঘটনাও ঘটেছে।

এমন পরিস্থিতিতে কৃষকদের বাঁচাতে অর্থমন্ত্রী চাল আমদানি সীমিত করার কথা বলেছেন। অন্যদিকে এবার লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে বেশি ধান উৎপাদন হওয়ায় চাল আমদানি পুরোপুরি বন্ধ রাখতে সুপারিশ করেছে খাদ্য মন্ত্রণালয়সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটি।

পূর্বকোণ/ময়মী

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 353 People

মন্তব্য দিন :

সম্পর্কিত পোস্ট