চট্টগ্রাম বুধবার, ১৯ ফেব্রুয়ারী, ২০২০

সর্বশেষ:

২৭ জানুয়ারী, ২০২০ | ১০:১৫ অপরাহ্ন

নিজস্ব প্রতিবেদক

করোনাভাইরাসের লক্ষণ না থাকা সত্ত্বেও বাংলাদেশিকে ভারতে প্রবেশে বাধা

ভারতে শওকত হোসেন (৫৮) নামের এক বাংলাদেশি নাগরিককে ঢুকতে দেয়া হয়নি। ভারতীয় ভিসা থাকা সত্ত্বেও দু’মাস আগে চীন ভ্রমণ করায় তাকে আটকে দেয়া হয়েছে। আজ সোমবার (২৭ জানুয়ারি) সকাল নয়টার দিকে করোনাভাইরাস আতঙ্কে ত্রিপুরা রাজ্যের আগরতলা ইমিগ্রেশন তাঁকে বাংলাদেশে ফেরত পাঠায়। তবে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া ইমিগ্রেশন চেকপোস্টে থাকা সিভিল সার্জন কার্যালয়ের মেডিকেল স্বাস্থ্য ডেস্ক প্রয়োজনীয় পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে তাঁর শরীরে এই ভাইরাসের কোনো লক্ষণ পায়নি।

আখাউড়া ইমিগ্রেশন সূত্রে জানা গেছে, চট্টগ্রামে মোটর যন্ত্রাংশের ব্যবসা করেন শওকত। গত নভেম্বর মাসের শেষদিকে ব্যবসায়িক কাজে তিনি চীনে যান। আজ সকালে আখাউড়া ইমিগ্রেশন চেকপোস্ট দিয়ে বহির্গমন ইমিগ্রেশন সম্পন্ন করে ভারতের ত্রিপুরা রাজ্যের আগরতলা ইমিগ্রেশনে যান। পাসপোর্ট যাচাইয়ের সময় ভারতীয় ইমিগ্রেশনের কর্মকর্তারা শওকতের পাসপোর্টে চীনের ভিসা দেখতে পান। এ সময় কোনো ধরনের স্বাস্থ্য পরীক্ষা না করেই আগরতলা ইমিগ্রেশনের কর্মকর্তারা শওকতকে আখাউড়া সীমান্ত দিয়ে বাংলাদেশে ফেরত পাঠান। পরে আখাউড়া ইমিগ্রেশনে সিভিল সার্জন কার্যালয়ের মেডিকেল ডেস্ক শওকতের প্রয়োজনীয় স্বাস্থ্য পরীক্ষা করে। কিন্তু স্বাস্থ্য বিভাগের কর্মীরা পরীক্ষায় শওকতের শরীরে করোনাভাইরাসের কোনো লক্ষণ পাননি।

শওকত আহমেদ সাংবাদিকদের বলেন, গত বছরের নভেম্বর মাসের শেষদিকে এক সপ্তাহের জন্য তিনি চীনে যান। কেনাকাটা ও বেড়ানোর জন্য আজ সোমবার সকালে আখাউড়া আন্তর্জাতিক ইমিগ্রেশন চেকপোস্ট দিয়ে তিনি ভারতের উদ্দেশে রওনা হন। কিন্তু পাসপোর্টে চীনের ভিসা দেখতে পেয়ে তাঁকে আটকে দেয়া হয় আগরতলা ইমিগ্রেশনে।

আগরতলা ইমিগ্রেশনের কর্মকর্তারা বলেন, এখন চীনে করোনাভাইরাসের সমস্যা চলছে। তাঁকে দু’মাস আগে চীন ভ্রমণ করায় ঢুকতে দেয়া যাবে না। আগরতলা ইমিগ্রেশন  এক মাস পরে ভারত যেতে বলেছে তাঁকে।

পূর্বকোণ/আরপি

The Post Viewed By: 67 People

সম্পর্কিত পোস্ট