চট্টগ্রাম বৃহষ্পতিবার, ০৪ মার্চ, ২০২১

২৭ জুলাই, ২০১৯ | ১:১২ পূর্বাহ্ণ

না. দো. প্রতিবেদন

সমাজ সমীক্ষা সংঘের বর্ষাবরণ সম্পন্ন

‘বর্ষা প্রেরণার ঋতু। বর্ষা আমাদের ব্যর্থতার গ্লানিভরা অতীত, হিংসা, হানাহানি ভুলে গিয়ে নতুনভাবে বাঁচার শিক্ষা দেয়। লোকসাহিত্যের আতুড় ঘর বর্ষা। নদীমাতৃক ও কৃষিপ্রধান এই দেশে বর্ষার অবসরে কৃষাণ-কৃষাণিরা রচনা করত বিভিন্ন লোকগল্প, গান, পুঁথি।’ গত ১২ জুলাই শুক্রবার নন্দনকানন, ফুলকি’র একে খান মিলনায়তনে সমাজ সমীক্ষা সংঘের বর্ষাবরণ অনুষ্ঠানে একুশে পদক প্রাপ্ত গবেষক ও অধ্যাপক ড. মাহবুবুল হক এসব কথা বলেন।
‘উৎসবসভা-মাঝে শ্রাবণের বীণা বাজে, শিহরে শ্যামল মাটি প্রাণের আনন্দে’। এ স্লোগানকে সামনের রেখে সমাজ সমীক্ষা সংঘের আয়োজনে এবারও গান ও কবিতায় বর্ষাবরণ অনুষ্ঠান গত ১২ জুলাই, ২০১৯ইং শুক্রবার বিকালে নন্দনকানন, ফুলকি’র একে খান মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হয়েছে। অনুষ্ঠানে বর্ষা বন্দনায় অধ্যাপক ড. মাহবুবুল হক জীর্ণতাকে পিছনে ফেলে নতুনের জয়গান করার আহ্বান জানান।
বর্ষা-বন্দনায় তিনি বলেন, জীর্ণ পুরানোকে পিছনে ফেলে নতুন কুঁড়ির মত জেগে উঠতে হবে। কৃষি প্রধান সংস্কৃতি থেকে সরে এসে আমরা আমাদের অতীত ভুলে গেছি। আকাশ সংস্কৃতির আগ্রাসনে আমরা ভুলতে বসেছি আমাদের সমৃদ্ধ কৃষ্টি ও সংস্কৃতিকে। বর্ষা বরণের স্থান দখল করেছে বিভিন্ন করপোরেট দিবস। আমাদের নিজস্ব স্বত্তা ও শেকড়ের কাছে ফিরে যেতে হবে। অনুষ্ঠানে শিল্পী সঞ্জয় রায় ও প্রিয়াঙ্কা গোপ বর্ষার গান, প্রকৃতি বন্দনা, রবীন্দ্রনাথ-শচিন দেববর্মন-ডিএল রায়সহ পঞ্চকবির গান পরিবেশন করেন।
সমাজ সমীক্ষা সংঘের সভাপতি কাজী মাহমুদ ইমাম বিলুর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানের উদ্বোধনী পর্বে স্বাগত বক্তব্য রাখেন বর্ষাবরণ অনুষ্ঠানের প্রস্তুতি কমিটির আহ্বায়ক জয়নুল আবেদিন রানা। অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন প্রস্তুতি কমিটির যুগ্ম আহ্বায়ক মিটু কুমার শীল, সদস্য সচিব সৈকত রুদ্র সেতু, সমাজ সমীক্ষা সংঘের পরিচালক পল্লব গুপ্ত বিপুল, সাইফুদ্দিন আহমেদ মিনহাজ প্রমুখ।
সম্প্রীতির অক্ষয় আধার আমাদের লোকসংস্কৃতি। শত বৈচিত্রের মাঝেও আমরা লোকসংস্কৃতিতে ঐক্যের সুর খুঁজে পাই। মানুষের আনন্দ-বেদনা, স্বপ্ন-সাধনা, প্রতিবাদী চেতনা, শিল্প-সাহিত্যকে হাজার বছর ধরে আঁকড়ে আছে আমাদের এ লোকসংস্কৃতি। তবুও আমরা মাঝে মাঝে বিভ্রান্ত হই, থমকে দাঁড়াই। কিন্তু লোকসংস্কৃতির অন্তর্নিহিত শক্তি ও মানুষের ঐক্যের বন্ধনে আমরা আবার পথ খুঁজে পাই।
এ লোকসংস্কৃতি চর্চা, আমাদের ঐতিহ্য, ইতিহাস, সম্পদ, সংস্কৃতি রক্ষার কাজে প্রতিষ্ঠালঘœ থেকে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে সমাজ সমীক্ষা সংঘ। সমাজ, রাজনীতি, অর্থনীতি ও সংস্কৃতি বিষয়ক গবেষণাধর্মী এ সংগঠন সারা বছর নানা উৎসব, অনুষ্ঠানের ধারাবাহিকতার একটি অংশ বর্ষাবরণ অনুষ্ঠান। এবারের বর্ষাবরণ অনুষ্ঠানের শুরুতে নৃত্য পরিবেশন করেন ওডিসি অ্যান্ড টেগর ডান্স মুভমেন্টের শিল্পীবৃন্দ।
এরপর কবিতায় বর্ষা আবাহন করেন আবৃত্তিশিল্পী রাশেদ হাসান। দ্বৈত আবৃত্তি নিয়ে মঞ্চে আসেন আবৃত্তিশিল্পী মুজাহিদুল ইসলাম ও শ্রাবণী দাশগুপ্তা। এরপর বর্ষার গান গেয়ে শোনান গানের দল বন্দর।

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 295 People

সম্পর্কিত পোস্ট