চট্টগ্রাম রবিবার, ১১ এপ্রিল, ২০২১

সর্বশেষ:

২০ মার্চ, ২০২১ | ১:৫০ অপরাহ্ণ

জোবেদা রত্না

আজ বিশ্ব শিশুনাট্য দিবস

অশুভ নেশার হাতছানি থেকে শিশুদের রক্ষা করতে হবে

নাটক শিশুদের আনন্দ ও ভাল-মন্দের জ্ঞান শিক্ষা দেয়। নাটকে আছে অন্যের সুখ-দুঃখ কল্পনা করার শিক্ষা। নাটকই পারে শিশুর জীবনের কালো মেঘ কাটিয়ে হাসাতে। সমাজের সকল অশুভ শক্তি, দত্যি-দানো আর রাক্ষস খোক্কসদের রুখে দেয়ার সাহস সঞ্চার করে নাটক। শিশুদের জন্য তাই নাটক চাই। নাটকে শিশুদের সম্পৃক্ততা চাই। মোবাইল আর অনলাইন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের মতো অশুভ নেশার হাতছানি থেকে শিশুদের সৃজনশীল নাট্যচর্চায় আগ্রহ সৃষ্টিই বিশ্ব শিশুনাট্য দিবসের মূল লক্ষ্য।

আজ ২০ মার্চ শনিবার বিশ্ব শিশুনাট্য দিবস। বিশ্বের বিভিন্ন দেশে নাট্যমহড়া, নাট্য প্রদশনী, লেকচার, পত্রিকা ও সাময়িকীতে ছোটদের নাটকের প্রতি আগ্রহ ও উদ্বুদ্ধকরণে ব্যাপক কর্মসূচি গ্রহণ করে এই দিনে। তবে করোনার কারণে ও শিশুদের স্বাস্থ্যের কথা চিন্তা করে এবার চট্টগ্রামে দিবসটি পালন করা হচ্ছে না। ১৯৯০ সন হতে অদ্যাবদি বিরামহীনভাবে শিশুথিয়েটার চর্চার মাধ্যমে কিডস কালচারাল ইন্সটিটিউটের চিলড্রেন্স থিয়েটার স্কুল শিশুদের সৃজনশীল বিকাশে কাজ করছে। জাতীয় ও আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রে অর্জন করছে সম্মাননা।

চট্টগ্রামে নাটকের ঐতিহ্য প্রাচীনকাল থেকে গড়ে উঠেছে। খ্রিষ্টীয় পঞ্চম শতক থেকে আধুনিক থিয়েটারের ধারাও এখানে প্রবাহমান। চল্লিশের দশকে কলকাতার পাশাপাশি পূর্ববঙ্গে চট্টগ্রামেই প্রথম গণনাট্য সংঘের শাখা চালু হয়েছিল প্রান্তিক নামে। অতঃপর স্বাধীনতা পর্বে গ্রুপ থিয়েটার র্চচা শুরু হয় ১৯৭৩ সাল থেকেই। স্বাধীনতাত্তোর চট্টগ্রামে ’তির্যক লিটল থিয়েটার’ নামে প্রথম শিশু থিয়েটার সংগঠন প্রতিষ্ঠিত হয়। এ দল আবু নাসের মো. ফেরদৌস রচিত ও খালেদা ফেরদৌস নির্দেশিত তিনটি নাটকের দশটি প্রদর্শনীর আয়োজন করে। নাটক তিনটি হলো আলীবাবা, শাহজাদীর ঘুম ভাঙ্গলো ও কাঠের ঘোড়া ।

১৯৮০ সালে খেলাঘর মহানগর কমিটি মঞ্চস্থ করে রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ’রাজারাজদ্রোহী’ যার নির্দেশনায় ছিলেন রনজিত রক্ষিত ও সনজিব বড়ুয়া। এভাবেই ধীরে ধীরে শিশুতোষ নাটক আত্মপ্রকাশ করে। ২০০৬ সালে লিয়াকত আলী লাকী রচিত ও মইনউদ্দীন কোহেল নির্দেশিত ‘ববি’ মঞ্চস্থ হয় শিশুএকাডেমির শিশুনাট্য প্রতিযোগিতায় এবং সেটি শ্রেষ্ঠ নাট্য পুরস্কার লাভ করে। ২০০৯ সালে কিড্ধসঢ়;স কালচারাল ইনসটিটিউটের ‘কিড্স থিয়েটার স্কুল’ প্রযোজনা করে সৌরভ শাখাওয়াত রচিত ও জি এম হিরো নির্দেশিত নির্বাক শিশুনাটক ‘কাকতাড়ুয়া’।

লেখক: জোবেদা রত্না, পরিচালক কিডস কালাচারাল ইন্সটিটিউট

পূর্বকোণ/এএ

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 262 People

সম্পর্কিত পোস্ট