চট্টগ্রাম সোমবার, ১৭ ফেব্রুয়ারী, ২০২০

সর্বশেষ:

১৪ ফেব্রুয়ারী, ২০২০ | ৪:০৪ পূর্বাহ্ন

অনলাইন ডেস্ক

ফেসবুকে ভালবাসার অনুভূতি

প্রেম আর ভালোবাসা শব্দ দুটি দুই ধরনের অর্থে ব্যবহৃত হয়। ভালোবাসা যেমন যেকোন মানুষের ক্ষেত্রে প্রযোজ্য, তেমনি প্রেমও। তবুও এই দুটিই বেশি প্রাধান্য পায় যখন কোন স্পেশাল ব্যক্তিকে নিয়ে ঘটে থাকে।

আমার জীবনেও তেমনি একবার ভালোবাসা এসেছিল। দুই বছর চোখে চোখে রাখার পরে একদিন মনস্থির করলাম এবার প্রিয় মানুষকে মনের কথা বলেই ফেলবো। যেমন ভাবনা তেমনি কাজ। বন্ধুদের সাথে পরামর্শ করতে লাগলাম কিভাবে ভালোবাসি কথাটা জানানো যায়। ওরাও আমাকে নানানরকম ধারণা দিলো। এবার মনের মানুষকে ম্যাসেজ দিলাম যে, আগামীকাল তোমার সাথে কিছু কথা শেয়ার করবো। সেও সাড়া দিলো, ঠিক আছে। পরদিন ভার্সিটি গেলাম এবং ক্লাস শেষে আগে থেকে জানিয়ে দেওয়া স্থানে ভালোবাসার মানুষ তার বান্ধবী নিয়ে অপেক্ষায়। আমি গেলাম, মনের ভেতর তখন নানারকম ভাবনা কাজ করেছে। বলেও দিলাম, ‘ভালোবাসি’। সবাই যেভাবে প্রপোজ করে ঠিক তেমনিভাবে করলাম কিন্তু হাতে কোন ফুল ছিল না। এই ব্যাপারে আমি আনাড়ি বললেই চলে। যাইহোক আমার দিক থেকে আমি যথেষ্ট আন্তরিক ছিলাম এবং সৎ ছিলাম। তাই হয়তো আজো আমি ভালোবাসার ছোঁয়া পেলাম না। সবার জীবনে ভালোবাসা আসুক আশীর্বাদ হয়ে। ভালোবাসা দিবসের শুভেচ্ছা সকলকে।

তান-ই-মুল আদনান তানিম
বিবিএ এমবিএ
বিজিসি ট্রাস্ট বিশ্ববিদ্যালয়, চট্টগ্রাম

‘ভালোবাসা’ একটা পবিত্র শব্দ। সৃষ্টিকর্তা যখন মানুষ সৃষ্টি করেছেন, ঠিক তখনই এই ভালোবাসার সৃষ্টি। যেটা আমরা আদম আর হাওয়ার ব্যাপারটা থেকে এর জ্বলন্ত প্রমাণ পাই। ভালোবাসার সৃষ্টিটা ভালোলাগা থেকেই। এই ভালোলাগা একটা স্বর্গীয় ব্যাপার। পৃথিবীটা এতো সুন্দর হওয়ার পেছনে কারণ হলো একমাত্র ভালোবাসা। ভালোবাসা থাকার কারণেই আমাদের মাঝে বেঁচে থাকার তাগিদটা আসে। মা বাবার প্রতি ভালোবাসা, সন্তানের প্রতি ভালোবাসা, প্রেমিক-প্রেমিকার প্রতি ভালোবাসা, ছাত্র-ছাত্রীদের প্রতি ভালোবাসা, শিক্ষকের প্রতি ভালোবাসা; সব ভালোবাসাই আমাদের মাঝে দারুণ আর চমকপ্রদ আবহ সৃষ্টি করে। বেঁচে থাকব কার জন্য? যেমন আমার পরিবার। আমার মা-বাবা, ভাই-বোন। আমার তো পুরোটা জুড়েই তারা। এই
যেমন- এখানে আমার বেঁচে থাকার অনুপ্রেরণা তারা, তাদের প্রতি আমার ভালোবাসাটা আছে বলেই। সবাই এভাবেই কারো না কারো ভালোবাসা দিয়ে, ভালোবাসা পেয়ে বেঁচে আছে। বেঁচেও আছি ভালোবাসা দেয়ার জন্য, ভালোবাসা পাওয়ার জন্য বেঁচেও আছি!
এজন্যই হয়তো পারস্যের কবি জালাল উদ্দিন রুমি বলেছিলেন, ‘আমি আমার জন্য মরে গেছি এবং বেঁচে আছি তোমার কারণে’। কবি এখানে ফুটিয়ে তুলেছেন যে- একজন মানুষ নিজের জন্য না, অন্যের জন্যই বেঁচে থাকেন। সুতরাং এখানেও ভালোবাসার আবেদনটা জড়িয়ে আছে।
ভালোবাসা মানে কী? সহস্র শব্দ নিঃশব্দে বলে দেয়ার নামই ভালোবাসা। আবার অনেক সময় এই ভালোবাসার সঠিক সংজ্ঞা কিংবা অর্থ সঠিকভাবে বোঝানো যায় না। একেকজন মানুষ একেকভাবে তার ভালোবাসার প্রকাশ করে। ধনী-গরিব সব মানুষের কাছেই এই ভালোবাসা এক। শুধু প্রকাশের ভঙ্গিটা আলাদা। দুইটা প্রাণ। দুই প্রাণের মাঝে হাজারো কি. মি. দূরত্ব থাকার পর হঠাৎ দুইজনের মাঝে একটা বন্ধনে আবদ্ধ হওয়ার পর একজনের প্রতি আরেকজনের কী মায়া! সেটা একজন স্বামী-স্ত্রী কিংবা প্রেমিক-প্রেমিকার বেলায়। ভালোবাসাবাসির মতো সৌন্দর্যের ব্যাপার পৃথিবীতে আরেকটাও নেই।
বিশ্বস্ত একটা হাত দরকার। অনেক দূরে যাওয়ার জন্য। জীবনটা ঠিক তখনই সুন্দর হবে, যখন একজন মানুষকে পাশে পাবে সুদীর্ঘ এভারেস্ট পাড়ি দেয়ার জন্য। ছোট ছোট পবিত্র অনুভূতিগুলো বড় বড় গল্পে রূপদানের জন্য এই ভালোবাসার গুরুত্ব অসীম। বেঁচে থাকুক ভালোবাসা।
এম ইয়াসিন আরাফাত
লোহাগাড়া, চট্টগ্রাম

মনে আছে কী ৯ ফেব্রুয়ারির কথা। ছটফটানো মন ব্যাকুল করা আমাদের গল্পটা। সেইদিন তোমাকে আমি প্রপোজ করেছিলাম। কিন্তু তুমি হ্যাঁ বা না কিছুই না বলে চলে গেলে। আমার জানা ছিলো না একটা মেয়েকে কীভাবে প্রপোজ করতে হয়। কারণ আমি কোনো গল্পের কিংবা সিনেমার হিরো ছিলাম না। হয়তো তোমারও অনেক ইচ্ছে ছিলো কেউ হিরোর মতো এসে একগুচ্ছ গোলাপ হাতে নিয়ে তোমাকে ভালোবাসার কথা বলবে। আর তাই ১৪ ফেব্রুয়ারি যে দিনটিকে ভালোবাসা দিবস বলে আখ্যায়িত করেছে যুগ যুগ ধরে সেইদিন তোমার ১৮ তম জন্মদিনও ছিলো আর তাই ১৮ টা গোলাপ হাতে নিয়ে বলেছিলাম ভালোবাসি ভালোবাসা।
আসলে তোমাকে ভালোবাসার জন্য আমার নিদিষ্ট কোনো দিনের প্রয়োজন হয় না। একটা মানুষকে সবসময় ভালোবাসা যায়। ভালোবাসি আর ভালোবাসো বলেই আজও এক আমরা। আমি জানি আমি তোমাকে অনেক বিরক্ত করি শুধু অনেকটা ভালোবাসার জন্য। তোমার ফোন ওয়েটিং কিংবা বিজি থাকলে আমি তোমাকে সন্দেহ করি অনেক বকাঝকা করি। এমনকি তোমার স্বাধীনতাগুলোকেও আমি খর্ব করি। আসলে প্রতিটা মুহুর্তে তোমাকে হারানোর ভয়ে থাকি। কারন আমাদের ভালোবাসাটা সমবয়সী। জানি না আমাদের পরিবার আমাদের ভালোবাসা মেনে নিবে কীনা। তোমাকে পাই বা না পাই তবে তোমার জন্য ভালোবাসা কখনো কমবে না। ভালোবাসলে যে পেতে হবে এমন কোনো কথা নেই। তোমাকে না পেলে তোমার খারাপ কিছু করবো এমনটা ভালোবাসিনি আমি তোমাকে। দূর থেকেও ভালোবাসার মানুষের ভালো চেয়ে আল্লাহর কাছে দোয়া করার মাঝেও একধরনের ভালোবাসা আছে। আজ ১৪ই ফেব্রুয়ারি তোমার জন্মদিন আর সেই সাথে ভালোবাসা দিবস তাই এই চিঠিখানার মাধ্যমে জানাচ্ছি শুভ জন্মদিন। অনেক অনেক ভালোবাসা রইল। ভালোবাসি আমার ‘সোহানা’।
সবার উদ্দেশ্যে একটা কথা বলবো ভালোবাসা দিবস বলে এই ভালোবাসাকে একটা পবিত্র বন্ধনে রাখবেন। কেউ ভালোবাসা দিবস বলে নিজের মানুষটির সাথে কোনোভাবে নোংরামি করবেন না। আপনার মন এবং নিয়ত দুটোই যদি পবিত্র থাকে তাহলে অবশ্যই আল্লাহর রহমতে আপনি তাকে পাবেন। আর ভালোবাসা দিবসটা শুধু নিজের মানুষের সাথে নয়, মা বাবার সাথেও দিনটি পালন করা যায়। পালন করা যায় কম ভাগ্যবান শিশুদের সাথেও যাদের কেউ নেই। সবাইকে ভালোবাসা দিবসের অনেক অনেক শুভেচ্ছা।
তৌফিক রবিন
হালিশহর, চট্টগ্রাম।

The Post Viewed By: 107 People

সম্পর্কিত পোস্ট