চট্টগ্রাম বুধবার, ২৭ জানুয়ারি, ২০২১

সর্বশেষ:

১৬ মে, ২০১৯ | ২:৩২ অপরাহ্ণ

প্রতিদিনই ২০ কি.মি. হাঁটেন মমতা

পশ্চিবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় গাড়িতে উঠে রোড শো করার চাইতে হেঁটে মিছিল করতেই বেশি স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করেন ।

তিনি মনে করেন যাঁরা গাড়িতে রোড শো করেন একভাবে দাঁড়িয়ে থাকার কারণে তাদের পা ফুলে যাওয়ার আশঙ্কা থাকে।

তাই তিনি চেষ্টা করেন পাঁচ মিনিটের বেশি এক জায়গায় না বসে থাকার। ফাইলও সই করেন দাঁড়িয়ে দাঁড়িয়েই।

তার মতে, ‘একবার বসে পড়লেন তো গেলেন! আর উঠতেই ইচ্ছে করবে না। শরীরের নাম মহাশয়। যা সওয়াবে, তাই সয়।’

বুধবার (১৫ মে) আগরপাড়ার ঊষুমপুরে এক নির্বাচনী জনসভায় ভাষণের ফাঁকে এভাবেই স্বাস্থ্য সচেতনতার বার্তা তুলে ধরেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা । এছাড়া তার পরামর্শে বাড়তি গুরুত্ব পায় আগের দিনে নারীদের কাজ করার পদ্ধতির প্রসঙ্গও।

আগে কেন মেয়েদের কম রোগ হতো? এমন প্রশ্ন তুলে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘মেয়েরা ঘর মোছা, মশলা বাটা, তরকারি কাটা, কাপড় কাচা সব করতো। এতে হাত ও কোমরসহ সারা শরীরের ব্যায়াম হয়ে যেত। এখন যন্ত্র আসায় সবাই মেশিনের মতো হয়ে গেছে। অনেকদিন গাড়ি না চালালে মরিচা ধরে যায়। অনেকেই এখন যন্ত্রের মাধ্যমে শরীরচর্চা করেন। তবে কৃত্রিম কিছুই ভালো নয়। মনে রাখবেন, ওল্ড ইজ অলওয়েজ গোল্ড। শুধু হাঁটলেও ক্যালরি বেশি ঝরে।’

নিজের প্রসঙ্গে তিনি জানান, ‘গত দেড় মাস ধরে একটানা নির্বাচনের প্রচার করছি। প্রতিদিন ২০ কিলোমিটার করে হাঁটি। আমি না হাঁটলে আমার মস্তিষ্ক হাঁটবে না। এমনকি আমি গলা ও মুখের ব্যায়ামও করি। নিজে সুস্থ থাকলে তবেই তো লড়াইটা জমবে।’

মমতার পরামর্শের সঙ্গে খানিকটা সহমত জানিয়ে অস্থি-রোগ চিকিৎসক রামেন্দু হোম চৌধুরী জানান, ‘নিজেকে সুস্থ রাখতে শরীরচর্চা অবশ্যই জরুরি। তবে এখন প্রতিযোগিতার ইঁদুর দৌঁড়ে এমনিতেই সকলে শামিল। সেজন্য আগের দিনের মতো মেয়েদের এখন পক্ষে ঘরের কাজ হাতে করাটা সময়সাপেক্ষ। ফলে সকলকে যন্ত্রের সাহায্য নিতেই হয়।’

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 330 People