চট্টগ্রাম বুধবার, ২২ জানুয়ারি, ২০২০

১৪ ডিসেম্বর, ২০১৯ | ৪:১০ পূর্বাহ্ন

রাহুলকে স্মৃতির প্রশ্ন ভারতের সবাই কি ধর্ষক!

ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক : ভারতজুড়ে ধর্ষণের ঘটনা বেড়ে যাওয়ায় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সমালোচনা করে আক্রমণের মুখে পড়েছেন কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী। মোদির ‘মেক ইন ইন্ডিয়া’ প্রচারণাকে কটাক্ষ করে ‘রেপ ইন ইন্ডিয়া’ (ভারতে ধর্ষণ) মন্তব্য করায় রাহুলকে তোপ দেগে বিজেপির নেত্রী ও কেন্দ্রীয় মন্ত্রী স্মৃতি ইরানি প্রশ্ন ছুড়েছেন, ভারতের সবাই কি ধর্ষক?

গতকাল শুক্রবার সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে কেন্দ্রীয় নারী ও শিশু উন্নয়নমন্ত্রী স্মৃতি বলেন, ‘নারীর প্রতি সহিংসতাকে রাজনৈতিক ইস্যু বানাতে তিনি (রাহুল) যা করেছেন তা নিন্দনীয়। নারীরা নিশ্চয়ই এজন্য তাকে জবাব দেবে। তবে আমি এখানকার (ব্রিফিংয়ে উপস্থিত) পুরুষদের কাছে জানতে চাই, ভারতের সব মানুষই কি ধর্ষক, যেটা রাহুল গান্ধী মনে করেন?’

গত বৃহস্পতিবার (১২ ডিসেম্বর) ঝাড়খ-ে এক নির্বাচনী সভায় কংগ্রেসের সাবেক সভাপতি রাহুল গান্ধী সরকারের সমালোচনায় তীব্র আক্রমণাত্মক বক্তব্য দেন। নারীর প্রতি সহিংসতা তুলে ধরে তিনি বলেন, ‘নরেন্দ্র মোদি বলেছেন ‘মেক ইন ইন্ডিয়া’, কিন্তু এখন যেদিকে তাকাই, দেখা যাচ্ছে ‘রেপ ইন ইন্ডিয়া’। প্রধানমন্ত্রীর সাধের ‘মেক ইন ইন্ডিয়া’ প্রকল্প এখন ‘রেপ ইন ইন্ডিয়া’য় পরিণত হয়েছে। দেশে যৌন নিপীড়ন যেভাবে বেড়েছে, তাতে গোটা বিশ্বের কাছে দেশের মাথা নত হয়ে যাচ্ছে।’

রাহুলের এই বক্তব্যের সমালোচনা করে স্মৃতি বলেন, আমি সোনিয়া গান্ধীর (রাহুলের মা ও কংগ্রেস সভাপতি) কাছে ব্যাখ্যা চাই। আর এ ধরনের নিন্দনীয় কার্যকলাপকে ভারতের নারীরা কখনো ক্ষমা করবে না।

রাহুল গান্ধীর কান খাড়া করে শোনা উচিত, তার ‘কাম রেপ ইন ইন্ডিয়া’ (এসো ভারতে ধর্ষণ করো) বলে আমন্ত্রণের জবাব ভারতের পরিবার অবশ্যই দেবে।’ রাহুল গান্ধীর ওই বক্তব্যের পর সংসদের উচ্চ ও নিম্ন-উভয়কক্ষেই তুমুল উত্তেজনা ছড়ায়। রাহুলকে তোপ দাগেন বিজেপি দলীয় সদস্যরা। সেখানেও স্মৃতি ইরানি বলেন, ‘ইতিহাসে এই প্রথম কোনো নেতা বলছেন যে, ভারতের নারীদের ধর্ষণ করা উচিত। এটাই কি দেশের জনগণের প্রতি
রাহুলের বার্তা? এজন্য
তার শাস্তি হওয়া
উচিত।’

The Post Viewed By: 32 People

সম্পর্কিত পোস্ট