চট্টগ্রাম সোমবার, ১৮ জানুয়ারি, ২০২১

সর্বশেষ:

১৫ মে, ২০১৯ | ১:১৬ পূর্বাহ্ণ

নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রীকে ৫ ডলার ‘ঘুষ’

ওই বালিকার নাম ভিক্টোরিয়া বলে জানা গেছে। এই বালিকা বলেছে, সে আত্মশক্তি’র অধিকারী হতে চায় যেন সে একজন ড্রাগন প্রশিক্ষক হতে পারে
ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক : ড্রাগন নিয়ে গবেষণা চালুর অনুরোধ জানিয়ে নিউ জিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জেসিন্ডা আরডার্নকে লেখা চিঠির সঙ্গে পাঁচ ডলার ‘ঘুষ’ দিয়েছে ১১ বছরের এক বালিকা। তার সরকার এই মুহূর্তে ‘আত্মশক্তি ও ড্রাগন’ নিয়ে কোনো কাজ করছে না উল্লেখ করে ফিরতি চিঠিতে সেই ‘ঘুষ’ ফেরত দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী।
বিবিসি জানিয়েছে, ওই বালিকার নাম ভিক্টোরিয়া বলে জানা গেছে। প্রধানমন্ত্রীর কাছে লেখা চিঠিতে এই বালিকা বলেছে, সে আত্মশক্তি’র অধিকারী হতে চায় যেন সে একজন ড্রাগন প্রশিক্ষক হতে পারে ।
দাপ্তরিক প্যাডে কম্পোজ করা চিঠিতে জেসিন্ডা বলেছেন, ‘আমার প্রশাসন বর্তমানে মনোবিদ্যা ও ড্রাগন নিয়ে কোনো কাজ করছে না।’ অবশ্য হাতে লেখা একটি নোটে জেসিন্ডা যোগ করেছেন, ‘আমি ড্রাগনগুলোর ওপর চোখ রাখবো। তারা কি জামা পরে?’ ওয়েব ফোরাম রেডিটের এক ব্যবহারকারীর পোস্টে প্রথম আদার্নের প্রত্যুত্তর দেওয়া চিঠিটি দেখা যায়। চিঠিটির ছবি শেয়ার করে ওই ব্যবহারকারী জানান, তার ছোট বোন ‘জেসিন্ডাকে ঘুষ দেয়ার’ চেষ্টা করেছিল।
ওই ব্যবহারকারী লিখেছেন, তার ছোট বোন চেয়েছিল ‘সরকার যেন আত্মিক শক্তি বানায় এবং সরকার ড্রাগন সম্বন্ধে কী জানে তা বের করে। তারা যদি ড্রাগন খুঁজে পায়, তাহলে সে তাদের প্রশিক্ষণ দিতে পারবে।’
তিনি জানান, নেটফ্লিক্সের কল্পবিজ্ঞানভিত্তিক সিরিজ ‘স্ট্রেঞ্জার থিংস’ তার স্কুলশিক্ষার্থী বোনকে টেলিপ্যাথি ও আত্মিক শক্তির বিষয়ে আগ্রহী করে তোলে-যেটি একজনের মন ব্যবহার করে বস্তু স্থানান্তর করতে পারে।
ভিক্টোরিয়াকে ধন্যবাদ জানিয়ে ফিরতি চিঠিতে প্রধানমন্ত্রী জেসিন্ডা লিখেছেন, ‘আত্মশক্তি ও ড্রাগন নিয়ে তোমার পরামর্শ শুনতে আমরা খুবই আগ্রহী। কিন্তু দুর্ভাগ্যজনকভাবে বর্তমানে আমরা এগুলোর কোনটি নিয়েই কাজ করছি না। এ কারণে আমি তোমার পাঠানো ঘুষের অর্থ ফিরিয়ে দিচ্ছি। আত্মশক্তি, টেলিপ্যাথি ও ড্রাগন নিয়ে তোমার অনুসন্ধানের সফলতা কামনা করছি।’

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 387 People

সম্পর্কিত পোস্ট