চট্টগ্রাম সোমবার, ১৬ ডিসেম্বর, ২০১৯

১৫ নভেম্বর, ২০১৯ | ১০:৩৩ অপরাহ্ন

অনলাইন ডেস্ক

মিয়ানমার ইস্যুতে বিপুল ভোটে রেজুলেশন জাতিসংঘে গৃহীত

জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের আবারও রোহিঙ্গা সংকট বিষয়ে বিপুল ভোটে একটি রেজুলেশন গৃহীত হয়েছে। পরিষদের তৃতীয় কমিটিতে সদস্য দেশসমূহের উপস্থিতিতে উন্মুক্ত ভোটের মাধ্যমে এ রেজুলেশনে ১৪০টি দেশ পক্ষে,  ৯টি বিপক্ষে ও পক্ষ অবলম্বনবিহীন ভোট প্রদান করে ৩২টি দেশ।

এক বিজ্ঞপ্তিতে বাংলাদেশ জানায়, মিয়ানমারের রোহিঙ্গা মুসলিম ও অন্যান্য সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের মানবাধিকার পরিস্থিতি শিরোনামে নিউইয়র্কে স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার আনীত এবারের রেজুলেশনটির বিশেষ দিক হলো এতে রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধানের বিভিন্ন উপায়গুলোর ওপর আলোকপাত করা হয়। একইসাথে মিয়ানমারকে কী কী পদক্ষেপ নিতে হবে তা উল্লেখ করা হয়েছে স্পস্টভাবে।

নিরাপত্তা পরিষদকে রেজুলেশনটি রোহিঙ্গা সমস্যার সমাধানে সুস্পষ্ট পদক্ষেপ নেয়ার আহ্বান জানিয়েছে, যা সরাসরি চাপ সৃষ্টি করবে নিরাপত্তা পরিষদের ওপর। তাছাড়া রেজুলেশনটিতে রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসনের ব্যর্থতার জন্য এতে মিয়ানমারকে দায়ী করে স্পষ্ট রাজনৈতিক সদিচ্ছা প্রদর্শন ও প্রত্যাবর্তনের উপযোগী পরিবেশ তৈরিসহ সুনির্দিষ্ট ১০টি বিষয়ে কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণ করতে বলা হয়েছে। এতে উল্লেখ করা হয়েছে জাতিসংঘ মহাসচিবের মিয়ানমার বিষয়ক বিশেষ দূতকে বাস্তব পরিস্থিতির বিষয়ে রিপোর্টিং বাধ্যতামূলক করার কথাও।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবারের সাধারণ পরিষদ অধিবেশনে প্রদত্ত বক্তব্যে রোহিঙ্গা সমস্যার সমাধানে যে সকল প্রস্তাবনা দেন তার বেশ কয়েকটি প্রস্তাবনা রেজুলেশনটিতে স্থান পেয়েছে এবং ‘রোহিঙ্গা মুসলিম’ শব্দটি অন্তর্ভুক্ত হয়েছে -যা গুরুত্বপূর্ণ সংযোজন।

জাতিসংঘে নিযুক্ত বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি রাষ্ট্রদূত মাসুদ বিন মোমেন তার বক্তব্যে রেজুলেশনটির বিভিন্ন দিক তুলে ধরে এটি সমর্থন করতে সদস্য দেশসমূহের প্রতি আহ্বান জানিয়ে বলেন, এটিকে আমরা শুধু একটি দেশভিত্তিক রেজুলেশন হিসেবেই দেখছি না, এটি আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের জন্য একটি দায়বদ্ধতার দলিল। এর মাধ্যমে বাস্তুচ্যুত রোহিঙ্গাদের টেকসই প্রত্যাবর্তন নিশ্চিত হতে পারে। এ সমস্যার সমাধানে দ্বি-পাক্ষিক প্রচেষ্টার পাশাপাশি আন্তর্জাতিক প্রচেষ্টার বিশেষ গুরুত্বের কথাও তুলে ধরেন মন্ত্রী।

পূর্বকোণ/রাশেদ

The Post Viewed By: 92 People

সম্পর্কিত পোস্ট