চট্টগ্রাম শনিবার, ১৯ অক্টোবর, ২০১৯

সর্বশেষ:

২৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ | ১:১৫ পূর্বাহ্ণ

যুদ্ধ শুরু হলে তার কোনো সীমানা থাকবে না : ইরান

ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক : যুক্তরাষ্ট্রে সফররত ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোহাম্মদ জাভেদ জারিফ হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে বলেছেন, তার দেশের বিরুদ্ধে যদি কেউ আগ্রাসন শুরু করে তাহলে তার জবাব এতটা ভয়াবহ হবে যে, সেই যুদ্ধ কোনো সুনির্দিষ্ট ভূখ-ের মধ্যে সীমাবদ্ধ থাকবে না।

ইরানের বিরুদ্ধে যে দেশই যুদ্ধ শুরু করুক না কেন তারা যুদ্ধ শেষ করতে পারবে না। যুদ্ধ পুরো মধ্যপ্রাচ্যে ছড়িয়ে পড়বে, এমনকি মধ্যপ্রাচের বাইরে সে যুদ্ধ ছড়িয়ে যাবে। মার্কিন টেলিভিশন চ্যানেল সিবিএস নিউজের ফেইস দ্যা নেশন অনুষ্ঠানকে দেয়া সাক্ষাতকারে গতকাল শনিবার এসব বলেন তিনি। তিনি স্পষ্ট করে বলেন, ইরানের বিরুদ্ধে যুদ্ধ শুরু করলে সে যুদ্ধ কোনভাবেই ইরানের ভেতর সীমাবদ্ধ থাকবে না। তবে ইরান কারো বিরুদ্ধে যুদ্ধ করতে চায় না তবে কেউ যদি ইরানের বিরুদ্ধে যুদ্ধ শুরু করে তাহলে তারা সে যুদ্ধ শেষ করতে পারবে না। জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের ৭৪তম অধিবেশনে যোগ দিতে এখন যুক্তরাষ্ট্রে রয়েছেন ট্রাম্প প্রশাসনের সবচেয়ে ‘অবাধ্য দেশ’ ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী। নিউইয়র্কে অবস্থিত জাতিসংঘ সদর দফতরের ইরানি মিশনে তার সাক্ষাতকার নেয়া হয়। সিবিএস টেলিভিশন গতকাল রোববার তা সম্প্রচার করবে।

গত ১৪ সেপ্টেম্বের সৌদি আরবের রাষ্ট্রীয় তেল উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান অ্যারামকোর দুটি তেল স্থাপনায় ভয়াবহ হামলার ঘটনা ঘটে। ইয়েমেনের হুথি বিদ্রোহীরা হামলার দায় স্বীকার করলেও যুক্তরাষ্ট্র তেহরানকে দায়ী করে সৌদিতে আরও সেনা পাঠানোর ঘোষণা দিয়েছে। সৌদি বলছে, তারা এই হামলার প্রতিশোধ নেবে।

ইরান, সৌদি আরব ও যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে প্রচ- সামরিক উত্তেজনার মধ্যেই খোদ যুক্তরাষ্ট্রে চলছে তখন জাভেদ জারিফ এসব কথা বললেন। সৌদি পররাষ্ট্রমন্ত্রী আদেল আল জুবায়েরের দাবি, হামলায় ব্যবহৃত অস্ত্র ইরানের তৈরি। তবে এসব অভিযোগ বরাবরের মতো নাকচ করে দিয়েছে ইরান। সিবিএস টেলিভিশনকে দেয়া সাক্ষাতকারে জাভেদ জারিফ বলেছেন, অ্যারামকো তেল স্থাপনায় হামলার পর সৌদি আরবে যুক্তরাষ্ট্র নতুন করে যে সেনা মোতায়েন করতে যাচ্ছে তা মধ্যপ্রাচ্যে চলমান উত্তেজনা নিরসনে কোনো ভূমিকা রাখবে না।

The Post Viewed By: 158 People

সম্পর্কিত পোস্ট