চট্টগ্রাম সোমবার, ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৯

সর্বশেষ:

৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ | ১১:৪০ পিএম

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

সৌদি আরবের নতুন জ্বালানিমন্ত্রী বাদশাহ পুত্র

অবশেষে দীর্ঘদিনের রেওয়াজ ভাঙতে চলেছে সৌদি আরব। ১৯৬০ সালের পর রাজ পরিবারের কেউ প্রথম জ্বালানিমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব নিচ্ছেন। নিজের ছেলে প্রিন্স আব্দুল আজিজ বিন সালমানকে জ্বালানিমন্ত্রী হিসেবে নিয়োগ দিয়েছেন সৌদি আরবের বাদশাহ সালমান। সৌদি আরবের রাষ্ট্রীয় সংবাদ সংস্থা এসপিএ-তে রাজকীয় প্রজ্ঞাপন জারি করে খালিদ আল-ফালিহকে সরিয়ে নতুন এ নিয়োগের কথা জানানো হয়।

প্রিন্স আব্দুল আজিজ দীর্ঘদিন ধরে অর্গানাইজেশন অব দ্য পেট্রোলিয়াম এক্সপোর্টিং কান্ট্রিজ (ওপেক)-এ সৌদি আরবের প্রতিনিধিত্ব করেছেন। যে কারণে তার কয়েক দশকের অভিজ্ঞতা রয়েছে তেল সংক্রান্ত বিষয়ে। তবে নতুন মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব ও সৌদি আরবের তেল ও ওপেক নীতিতে তিনি খুব একটা পরিবর্তন আনবেন না বলেই বিশ্বাস সৌদি কর্মকর্তা ও বিশেষজ্ঞদের।

বাজারে ভারসাম্য ধরে রাখতে এবং তেলের দর পতন রোধে সম্প্রতি ওপেকf~³ এবং ওপেকের বাইরের তেল উৎপাদনকারী দেশগুলোর (ওপেক+) মধ্যে তেল উৎপাদন হ্রাসের বিষয়ে একটি চুক্তি হয়েছে। ওই চুক্তির গুরুত্বপূর্ণ মধ্যস্থতাকারী ছিলেন প্রিন্স আব্দুল আজিজ।

প্রিন্স আব্দুল আজিজ সৌদি তেল নীতি আরো সমৃদ্ধ করবেন এবং ওপেকভুক্ত ও ওপেক+ দেশগুলোর সঙ্গে আরো দৃঢ় সহযোগিতার সম্পর্ক স্থাপন করতে পারবেন বলে আশা প্রকাশ করেন এক সৌদি কর্মকর্তা।

৫৯ বছরের প্রিন্স আব্দুল আজিজ দেশটির ক্ষমতাধর যুবরাজ প্রিন্স মোহাম্মদ বিন সালমানের সৎ ভাই। ২০১৭ সাল থেকে তিনি দায়িত্ব পালন করেছেন জ্বালানি সংক্রান্ত বিষয়ে প্রতিমন্ত্রীর। এছাড়া, সাবেক তেলমন্ত্রী আলি আল-নাইমির সহযোগী হিসেবেও আব্দুল আজিজের রয়েছে দীর্ঘ কাজের অভিজ্ঞতা। তার আগে সৌদি আরবে পাঁচজন তেলমন্ত্রী দায়িত্ব পালন করেছেন। তবে তাদের কেউই রাজপরিবারের সদস্য ছিলেন না।

 

পূর্বকোণ/আফছার

The Post Viewed By: 115 People

সম্পর্কিত পোস্ট