চট্টগ্রাম মঙ্গলবার, ০২ মার্চ, ২০২১

৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ | ৯:০০ অপরাহ্ণ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

জেলে যেতে পারেন বরিস!

যুক্তরাজ্যের রাজনীতিতে ব্রেক্সিট নিয়ে জল কম ঘোলা হয়নি। ব্রেক্সিট নির্ধারিত সময় থেকে পেছাবে কি পেছাবে না তা নিয়ে উত্তাল যুক্তরাজ্যের রাজনীতি। যার কারণে পরিস্থিতি আরও ঘোলাটে হয়ে যাচ্ছে তিনি আর কেউ নন, স্বয়ং প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন নিজেই! ব্রেক্সিট পিছিয়ে দিতে রাজি না হলে বরিস জনসনের বিরুদ্ধে আদালতে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন এমপিরা। এতে তাকে কারাগারেও যেতে পারে বলে সতর্ক করেছে আইনজ্ঞরা।

তিনি চুক্তিবিহীন ব্রেক্সিটের পক্ষে। কিন্তু তার বিরোধীরা এটা হতে দেবে না বলে ঘোষণা দিয়ে নেমেছে ময়দানে। প্রধানমন্ত্রী যেন সফল হতে না পারেন সেজন্য সম্ভাব্য সব করছে তারা। বিরোধীরা ইতোমধ্যে কিছুটা সফলও হয়েছে বলা যায়। এতে বেশ বেকায়দায় পড়েছেন বরিস।

এদিকে দেশটির পাবলিক প্রসিকিউশনের সাবেক পরিচালক লর্ড ম্যাকডোনাল্ড মন্তব্য করেছেন, বরিস যদি ব্রেক্সিট বাস্তবায়নে কালক্ষেপণ না করেন তবে তার জেলও হতে পারে।

শনিবার (৭ সেপ্টেম্বর) যুক্তরাজ্যভিত্তিক একটি সাংবাদমাধ্যমের খবরে বলা হয়, সাধারণত বরিস জনসন ‘নো ডিল এক্সিট’ বিলকে উপেক্ষা করতে পারেন। পরে যদি তা আদালত পর্যন্ত গড়ায় এবং তাকে ব্রেক্সিটের জন্য সময় বাড়ানোর আবেদন করতে বলা হয়, তবে তাকে আবেদন করতে হবে। যদি তিনি এরপরও তা উপেক্ষা করে আবেদন করে ব্রাসেলসে (ইউরোপীয় ইউনিয়নের প্রধান কার্যালয়) চিঠি না পাঠান আদালত অবমাননার দায়ে তার জেল হবে।

বিবিসি জানায়, প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন যদি ব্রেক্সিট পিছিয়ে দিতে রাজি না হন, তাহলে আইনী ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য প্রস্তুতি নিতে শুরু করেছেন এমপিরা। এদের মধ্যে বরখাস্ত হওয়া ক্ষমতাসীন দলে এমপিরাও রয়েছেন।

পূর্বকোণ/তাসফিয়া

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 322 People

সম্পর্কিত পোস্ট