চট্টগ্রাম শনিবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী, ২০২১

সর্বশেষ:

৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ | ৫:৩৯ অপরাহ্ণ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

আবেগে বিজ্ঞানীকে বুকে জড়িয়ে ধরলেন মোদি

ভারতীয় মহাকাশ যান চন্দ্রযান-২ এর চাঁদের বুকে অবতরণের কথা ছিল । অবতরণের ঠিক শেষ মুহূর্তেই ল্যান্ডার থেকে বিচ্ছিন্ন হয় যানটি।  আর এতে ভেঙে পড়ে ভারতীয় মহাকাশ গবেষণা সংস্থার (ইসরো) বিজ্ঞানীরা। চন্দ্রযান-২ যদি সফলভাবে চাঁদে অবতরণ করতে পারতো, বিশ্ব ইতিহাসে নাম উঠে যেত ভারতের। এটি সফল হলে ভারতের ইতিহাসে অমর হতো আরও একটি নাম, সেটি হলো কে শিবান।

স্বপ্নভঙ্গে  ইসরোর’র প্রধান বিজ্ঞানী কে শিবান কান্নায় ভেঙে পড়েন। আবেগে তাকে জড়িয়ে ধরে সান্ত্বনা দিতে দেখা যায় স্বয়ং প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে। দক্ষিণ ভারতের এক কৃষক পরিবারে জন্ম কে শিবানের। ভারতের মহাকাশ গবেষণায় তার রয়েছে বিপুল অবদান।  তার নেতৃত্বেই ভারত একসঙ্গে ১০৪টি স্যাটেলাইট লঞ্চ করে বিশ্বের কাছে নজির গড়েছিল। ওই অভিযানে কে শিবানই  ঠিক করেছিলেন স্যাটেলাইটগুলো কীভাবে, কোন কক্ষপথে স্থাপন করা হবে।

তার উদ্ভাবিত ক্রায়োজেনিক ইঞ্জিনে ভর করেই ভারত আজ মহাকাশ গবেষণার নতুন দিক উম্মোচন করেছে। তবে চন্দ্রযান-২ নিয়ে তিনি একটু বেশি আশাবাদী ছিলেন।  কিন্তু মাত্র ২.১ কিলোমিটার দূরেই ঘটে গেল দুর্ঘটনা।  চাঁদে অবতরণের শেষ মুহূর্তে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায় চন্দ্রযান-২ এর।

আজ শনিবার সকালে জাতির উদ্দেশে ভাষণ দেয়ার জন্য ইসরোয় হাজির হন মোদিসহ কয়েকজন রাজনীতিবিদ। মোদি ইসরো’র প্রধান বিজ্ঞানীকে শিবানসহ অন্যদের সান্ত্বনা দিয়ে তাদের সাহসী অভিযানের প্রশংসা করেন।

ভাষণে মোদি মনোবল ভেঙে যাওয়া বিজ্ঞানীদের উদ্দেশে বলেন, ‘চাঁদে যাওয়ার মনোবল আমাদের আরও দৃঢ় হলো এবং শিগগিরই সুসময় আসবে।’

তিনি বলেন, ‘আমাদের সমৃদ্ধ ইতিহাস অনুযায়ী, আমাদের গতি কমিয়ে দিলেও স্পিরিট থামিয়ে দেয়া যায় না। আমরা আবার ঘুরে দাঁড়াই এবং আরও চমৎকার কিছু করে দেখাই। আর এ কারণেই আমাদের সভ্যতা এত উচুতে পৌঁছেছে।’

ভাষণ শেষে বিজ্ঞানীদের সঙ্গে হাত মিলিয়ে বেরিয়ে যাওয়ার সময়ে তৈরি হলো এক আবেগঘন মুহূর্ত। আবেগে ইসরো প্রধান ড. কে শিবানকে নিজের বুকে টেনে নিলেন মোদী।  পিঠ চাপড়ে সান্ত্বনা দিলেন। সে সময় চোখের কোণ যেন চিকচিক করে উঠল মোদিরও।

এর আগে গতকাল শুক্রবার রাতেও প্রধানমন্ত্রী মোদি চন্দ্রযান-২ এর অভিযান দেখার জন্য ইসরো’র প্রধান কার্যালয় ব্যাঙ্গালুরুতে যান।  শুক্রবার রাত ১টা ৫৫ মিনিটের পর চন্দ্রযান-২ চাঁদে অবতরণের একেবারে শেষ মুহূর্তে নিখোঁজ হয়।  গতকাল শুক্রবার রাত ১টা ৪০ মিনিট থেকে ১টা ৫৫ মিনিটকে ‘দুশ্চিন্তার মুহূর্ত’ হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছিল।

চন্দ্রযান-২ সফলভাবে অবতরণ করতে পারলে ভারত বিশ্বের চতুর্থ দেশ হিসেবে চাঁদে যাওয়ার গৌরব অর্জন করতে পারত।  এর আগে চাঁদে অবতরণ করেছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, সাবেক সোভিয়েত ইউনিয়ন ও চীন।

পূর্বকোণ/তাসফিয়া

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 527 People

সম্পর্কিত পোস্ট