চট্টগ্রাম শনিবার, ২৮ জানুয়ারি, ২০২৩

সর্বশেষ:

২১ জানুয়ারি, ২০২৩ | ১:২৩ অপরাহ্ণ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

গাড়িতে সিটবেল্ট না পরে জরিমানার মুখে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী

যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী ঋষি সুনাক চলন্ত গাড়িতে কিছু সময়ের জন্য সিটবেল্ট খুলে বিপাকেই পড়লেন। এর জন্য জরিমানা গুণতে হচ্ছে তাকে।

 

 

ঋষি সুনাকের নাম উল্লেখ না করে ল্যাঙ্কেশায়ারের পুলিশ জানিয়েছে, চলন্ত গাড়িতে সিটবেল্টে খুলে রাখার দায়ে ৪২ বছর বয়সী একজনকে জরিমানা করা হয়েছে।

 

 

ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় ‘ডাউনিং স্ট্রিট ১০ নং’ জানিয়েছে, সুনাক যে ভুল করেছেন তার জন্য ক্ষমা চেয়েছেন। শাস্তি হিসেবে তিনি জরিমানা দেবেন। সুনাককে ২৮ দিনের মধ্যে জরিমানা পরিশোধ করতে হবে।

 

 

যুক্তরাজ্যের আইন অনুযায়ী, গাড়ি চলাকালীন সিটবেল্ট পড়তে ব্যর্থ হলে তাৎক্ষণিক ১০০ পাউন্ড জরিমানার মুখোমুখি হতে পারে। যদি এ সংক্রান্ত মামলা আদালতে যায়, তাহলে ৫০০ পাউন্ড পর্যন্ত জরিমানা গুনতে হতে পারে।

 

 

সুনাক বৃহস্পতিবার গাড়িতে উত্তর-পশ্চিম ইংল্যান্ডে ভ্রমণে যান। চলন্ত গাড়িতে তিনি সময় কিছু সময়ের জন্য সিটবেল্ট সরিয়ে নিয়েছিলেন। মূলত সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে একটি ভিডিও’র জন্য তিনি তার সিটবেল্ট সরান। যা পরবর্তীতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে সমালোচনার ঝড় শুরু হয় ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী সুনাকের বিরুদ্ধে। একজন প্রধানমন্ত্রী হয়ে এ ধরনের কাজে বিরোধী দল লেবার পার্টিও ধুয়ে দিয়েছে তাকে।

 

 

ব্রিটিশ সরকারের দায়িত্ব পালনের সময় এ নিয়ে সুনাক দ্বিতীয়বার শাস্তি পেলেন। ২০২০ সালে সাবেক প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন করোনার বিধিনিষেধ উপেক্ষা করে ডাউনিং স্ট্রিটে মদ্যপানের পার্টির আয়োজন করে বিপদে পড়েন। সব মিলিয়ে চাপের মুখে দায়িত্ব থেকে সরে দাঁড়াতে বাধ্য হয় বরিসকে। সূত্র : বিবিসি

 

পূর্বকোণ/আরএ/এএইচ

 

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট