চট্টগ্রাম বৃহষ্পতিবার, ০২ ফেব্রুয়ারী, ২০২৩

২৬ ডিসেম্বর, ২০২২ | ১১:০৪ অপরাহ্ণ

অনলাইন ডেস্ক

গ্যাসসংকট কাটাতে সৌরশক্তি বাড়াচ্ছে ইউরোপ

ইউক্রেন যুদ্ধ শুরুর পর থেকেই জ্বালানি নিয়ে সংকটে আছে ইউরোপ। পশ্চিমা নিষেধাজ্ঞার বিপরীতে রাশিয়া ইউরোপীয় দেশগুলোতে তেল ও গ্যাস সরবরাহ কমিয়ে দেওয়ায় এই অঞ্চলের জন্য শীতে টিকে থাকা কঠিন হয়ে পড়েছে। এ অবস্থায় বিকল্প সরবরাহ নিশ্চিত করার পাশাপাশি নবায়নযোগ্য জ্বালানি সক্ষমতা বাড়াচ্ছে দেশগুলো। বিশেষ করে সৌরবিদ্যুৎ সক্ষমতা বৃদ্ধিতে দ্রুত এগিয়ে যাচ্ছে ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ)।

শিল্পসংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠান সৌলারপাওয়ার ইউরোপের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, ইইউ এ বছর আগের সব রেকর্ড ভেঙ্গে ৪১.৪ গিগাওয়াট সৌরবিদ্যুৎ স্থাপন করেছে, যা এক কোটি ২৪ লাখ পরিবারে বিদ্যুৎ দেওয়ার জন্য যথেষ্ট। ২০২১ সালে সৌর সক্ষমতা ছিল ২৮.১ গিগাওয়াট। ফলে সৌরবিদ্যুৎ সক্ষমতা বাড়ল ৪৭ শতাংশ। আশা করা হচ্ছে, আগামী চার বছরে এই সক্ষমতা ১৩২ শতাংশ বেড়ে হবে ৪৮৪ গিগাওয়াট।

 

সৌলারপাওয়ার ইউরোপের সিইও ওয়ালবার্গা হেমেটসবারগার বলেন, ‘বর্তমান বিশ্বে যে জলবায়ু ও জ্বালানিসংকট বিরাজ করছে, তার মধ্যে জীবনী শক্তি হয়ে উঠেছে সৌরবিদ্যুৎ। ফলে যে হারে বেড়েছে তা অস্বাভাবিক নয়। ’ তিনি বলেন, ‘নবায়নযোগ্য জ্বালানির মধ্যে সৌর বিদ্যুৎই খুব দ্রুত নির্ভরযোগ্য উৎস হিসেবে বাড়ানো যায়।

আন্তর্জাতিক জ্বালানি সংস্থা (আইইএ) বলছে, রাশিয়ার গ্যাস সরবরাহ কমার কারণে যে ঘাটতি তৈরি হয়েছে তা পূরণ করতে হলে ইউরোপকে ২০২৩ সালে সৌর সক্ষমতা বাড়াতে হবে প্রায় ৬০ গিগাওয়াট। সৌলারপাওয়ার ইউরোপ মনে করে, লক্ষ্য অনুযায়ী সৌরবিদ্যুৎ উৎপাদনের মাধ্যমে ইউরোপ রাশিয়ার গ্যাসের যে ঘাটতি তা কাটাতে সক্ষম হবে।

 

ইউরোপীয় দেশগুলোর মধ্যে রাশিয়ার গ্যাসের ওপর সবচেয়ে বেশি নির্ভরশীল জার্মানি। এই দেশটিই সৌর সক্ষমতা বৃদ্ধিতে সবচেয়ে বেশি এগিয়ে। ২০২২ সালে দেশটির সৌরশক্তি বেড়েছে আট গিগাওয়াট। দ্বিতীয় অবস্থানে আছে স্পেন। এই দেশটির সৌর সক্ষমতা বেড়েছে ৭.৫ গিগাওয়াট। ২০২২ সালের চেয়ে দেশটির সৌর প্যানেল স্থাপন বেড়েছে ৫৫ শতাংশ। তৃতীয় অবস্থানে রয়েছে পোল্যান্ড। দেশটির সৌর সক্ষমতা ২০২২ সালে বেড়েছে ৪.৯ গিগাওয়াট। চতুর্থ স্থানে থাকা নেদারল্যান্ডসের সক্ষমতা বেড়েছে ৪.০ গিগাওয়াট এবং পঞ্চম স্থানে থাকা ফ্রান্সের বেড়েছে ২.৭ গিগাওয়াট।

রেপপাওয়ারইউ প্ল্যান জানায়, আগামী ২০৩০ সাল নাগাদ জ্বালানি সরবরাহের ৪৫ শতাংশ নবায়নযোগ্য জ্বালানি থেকে নিতে চায় ইইউ। এ লক্ষ্যে দেশগুলো সৌরবিদ্যুতে বেশি জোর দিচ্ছে। ২০২১ সালে ইউরোপের বিদ্যুতের মাত্র ৬ শতাংশ এসেছে সৌরশক্তি থেকে। সূত্র: ইউরোনিউজ।

 

পূর্বকোণ/সাফা/পারভেজ

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট