চট্টগ্রাম শনিবার, ২৮ জানুয়ারি, ২০২৩

সর্বশেষ:

২১ ডিসেম্বর, ২০২২ | ১:১৯ অপরাহ্ণ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

নাইজেরিয়া থেকে লুঠ হওয়া ২০টি ব্রোঞ্জমূর্তি ফেরত দিল জার্মানি

নাইজেরিয়া থেকে লুঠ হওয়া ২০টি ব্রোঞ্জমূর্তি ফেরত দিয়েছে জার্মানি।

মঙ্গলবার (২০ ডিসেম্বর) নাইজেরিয়ায় রীতিমতো অনুষ্ঠান করে এসব মূর্তি ফেরত দেয় দেশটি। জার্মান পররাষ্ট্রমন্ত্রী বেয়ারবক অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

বেনিন ব্রোঞ্জ নামে পরিচিত ওই মূর্তিগুলো আগামী বছর নাইজেরিয়ার জাদুঘরে প্রদর্শন করা হবে বলে জানানো হয়েছে।

আপাতত ২০টি মূর্তি দেওয়া হয়েছে। জার্মানির একাধিক শহরের জাদুঘরে এমন আরও অনেক মূর্তি আছে। সেগুলোও ধীরে ধীরে ফেরত দেওয়া হবে বলে জার্মান প্রশাসন জানিয়েছে।

১৮৯৭ সালে যুক্তরাজ্যের ঔপনেবেশিক শাসক নাইজেরিয়া থেকে প্রায় এক হাজার ১৩০টি বেনিন ব্রোঞ্জ মূর্তি লুঠ করেছিল। ঠিক যেভাবে ভারত থেকে তারা লুঠ করেছিল কোহিনূর। কোহিনূর এখনও ব্রিটিশ জাদুঘরে আছে। বেনিন ব্রোঞ্জগুলো বিক্রি করে দেওয়া হয় জার্মানিকে। জার্মানির বিভিন্ন শহরের জাদুঘরে ওই মূর্তিগুলো আছে।

মঙ্গলবার তার ২০টি মূর্তি ফেরত দিয়ে জার্মান পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘মূর্তিগুলো যাদের, তাদের ফেরত দিতে পেরে আমরা খুশি। একসময় যে ভুল হয়ে গিয়েছিল, আমরা তা শুধরে নেওয়ার চেষ্টা করছি।’

শুধু তা-ই নয়, বেয়ারবক বলেছেন, ‘এগুলি কেবল মূর্তি নয়, এগুলো এক সংস্কৃতির অঙ্গ। নাইজেরিয়ার ইতিহাস জড়িয়ে আছে এই মূর্তিগুলোর সঙ্গে।’

জার্মান সংস্কৃতিমন্ত্রী ক্লডিয়া রথও নাইজেরিয়া গেছেন। তিনি জানিয়েছেন, বাকি মূর্তিগুলোও ফেরত দেওয়া হবে।

নাইজেরিয়ার তথ্য ও সংস্কৃতি মন্ত্রী আলহাজি লাই মোহাম্মদ জানিয়েছেন, ১০ বছর আগেও এমনটা আশা করা যায়নি। মূর্তিগুলো যে ফেরত পাওয়া যাবে, এমনটা ভাবাই যায়নি। জার্মানিকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন তিনি।

২০২৩ সালের গোড়ায় নাইজেরিয়ার জাদুঘরে এই মূর্তিগুলো প্রদর্শন করা হবে বলে জানিয়েছেন জাদুঘরের প্রধান। সূত্র : ডয়েচে ভেলে

 

 

পূর্বকোণ/এসি

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট