চট্টগ্রাম সোমবার, ২৮ নভেম্বর, ২০২২

সর্বশেষ:

২২ অক্টোবর, ২০২২ | ১২:৩০ অপরাহ্ণ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

ক্যাপিটলে হিলে দাঙ্গা : এবার ট্রাম্পকে তলব

যুক্তরাষ্ট্রের পার্লামেন্ট ভবন ক্যাপিটল হিলে দাঙ্গার মূল উস্কানিদাতা হিসেবে অভিযুক্ত সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে তলব করেছে মার্কিন পার্লামেন্টের নিম্নকক্ষ হাউস অব রিপ্রেজেন্টেটিভসের তদন্তকারী কমিটি। ইতোমধ্যে ট্রাম্পের ঠিকানায় এ সংক্রান্ত একটি লিখিত আদেশও পাঠানো হয়েছে কমিটির পক্ষ থেকে।

২০২১ সালের ৬ জানুয়ারি দাঙ্গায় সংশ্লিষ্টতা নিয়ে আত্মপক্ষ সমর্থনে ট্রাম্পের কাছে যেসব লিখিত তথ্য রয়েছে, তা আগামী ৪ নভেম্বরের মধ্যে জমা দিতে আদেশ দিয়েছে পার্লামেন্টারি তদন্তকারী কমিটি। তার ১০ দিন পর, ১৪ নভেম্বর সাফাই সাক্ষ্য দিতে ক্যাপিটলে হাজির হওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

পার্লামেন্টের তদন্তকারী কমিটির লিখিত আদেশে ট্রাম্পকে উদ্দেশ্য করে বলা হয়, ‘৬ জানুয়ারি ক্যাপিটল হিলে যে নজিরবিহীন দাঙ্গা হয়েছিল, শুরু থেকেই তার কেন্দ্রে ছিলেন আপনি। কারণ যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে আপনিই একমাত্র প্রেসিডেন্ট, যিনি নির্বাচনে কারচুপির অভিযোগ করেছিলেন এবং ফলাফল উল্টে দিতে চেয়েছিলেন।’

‘(প্রেসিডেন্ট নির্বাচনকে ঘিরে) আপনি এবং আপনার সমর্থকরা যা যা করেছেন, তার সবই যে অবৈধ ও অসাংবিধানিক— আপনিও জানতেন।’

বিবিসির এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ডোনাল্ড ট্রাম্প যদি হাউস অব রিপ্রেজেন্টেটিভসের এই আদেশ সাড়া না দেন, অর্থাৎ যৌক্তিক কোনো কারণ ছাড়াই ৪ নভেম্বর নথি প্রদান করা ও ১৪ নভেম্বর সশরীরে সাফাই সাক্ষ্য দিতে ক্যাপিটলে আসতে ব্যর্থ হন, সেক্ষেত্রে পুরো ব্যাপারটি চলে যাবে যুক্তরাষ্ট্রের আইন ও বিচার বিষয়ক মন্ত্রণালয়ে এবং মন্ত্রণালয় থেকে ট্রাম্পকে দোষী সাব্যস্ত করে তার বিরুদ্ধে আইনী প্রক্রিয়া শুরু হবে।

২০২০ সালের নভেম্বরে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে জয়ী হন তৎকালীন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী ও ডেমোক্রেটিক পার্টির নেতা জো বাইডেন। তবে পরাজিত হওয়ার পর থেকেই ট্রাম্প নির্বাচনে কারচুপির অভিযোগ করে আসছিলেন। এমনকি নির্বাচন বাতিলের দাবিতে রাজধানী ওয়াশিংটনসহ একাধিক অঙ্গরাজ্যের আদালতে কয়েকটি মামলাও করেছিলেন তিনি। কিন্তু সেসব মামলার সবগুলোতেই তিনি পরাজিত হন।

২০২১ সালের ৬ জানুয়ারি ওয়াশিংটন ডিসিতে ক্যাপিটল হিল ভবনে দেশের নতুন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের জয় আনুষ্ঠানিকভাবে অনুমোদন করতে এক যৌথ অধিবেশনে বসেছিলেন। সেই অধিবেশন শুরুর কিছুক্ষণের মধ্যে হঠাৎ ট্রাম্পের কয়েক হাজার সমর্থক ক্যাপিটল ভবনে ঢুকে তাণ্ডব শুরু করেন।

২০২১ সালের ৬ জানুয়ারি ওয়াশিংটন ডিসির ক্যাপিটল হিল ভবনে যুক্তরাষ্ট্রের আইনপ্রণেতারা যখন নভেম্বরের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে জো বাইডেনের জয় আনুষ্ঠানিকভাবে অনুমোদন করতে এক যৌথ অধিবেশনে বসেছিলেন, ঠিক তখনই ট্রাম্পের শত শত সমর্থক কংগ্রেসের ক্যাপিটল ভবনে ঢুকে পড়েন।

সেদিন সকালের বেশ আগেই হাজার হাজার ট্রাম্প সমর্থক ‘আমেরিকাকে বাঁচাও’ নামের একটি গণজমায়েত কর্মসূচিতে অংশ নিতে ওয়াশিংটনে এসেছিলেন। প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প ওই জনসভায় ভাষণ দিয়ে জো বাইডেনের বিজয় অনুমোদন করার বিরুদ্ধে বক্তব্য রাখেন। পাশাপশি এই অনুমোদন প্রকিয়া রুখে দিতে ভক্ত-সমর্থকদের সক্রিয় হওয়ার আহ্বানও জানান তিনি।

ট্রাম্পের বক্তব্য দেওয়াার দুই ঘণ্টার মধ্যে সমাবেশস্থল থেকে একটু দূরে একটু দূরে কয়েক হাজার ট্রাম্প সমর্থক ক্যাপিটল ভবনে নিরাপত্তা ব্যারিকেড ভেঙে পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে লিপ্ত হন। একপর্যায়ে কংগ্রেসের অধিবেশন চলার মধ্যেই পুলিশের বাধা ভেঙে ক্যাপিটল ভবনে ঢুকে পড়েন ট্রাম্প সমর্থকরা। এ সময় তাদের অধিকাংশের হাতে ছিল ট্রাম্পের পতাকা।

সেদিন ট্রাম্পের সমর্থক ও হামলাকরীদের সংঘাতে দুই পুলিশ কর্মকর্তাসহ ৬ জন নিহত হন, এবং আহত হয়েছেন পুলিশ সদস্যসহ ১৪০ জন।

 

 

পূর্বকোণ/এসি

শেয়ার করুন