চট্টগ্রাম শুক্রবার, ০২ ডিসেম্বর, ২০২২

সর্বশেষ:

১২ অক্টোবর, ২০২২ | ৪:২৯ অপরাহ্ণ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

ক্রিমিয়া সেতুতে বিস্ফোরণ, সন্দেহভাজন ৮ জন আটক

ক্রিমিয়ার সঙ্গে রাশিয়ার একমাত্র সংযোগ সেতুতে বিস্ফোরণের ঘটনায় আট সন্দেহভাজনকে গ্রেপ্তার করেছে রুশ নিরাপত্তা বাহিনী। দেশটির রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যম তাসের বরাত দিয়ে এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরা।

 

রাশিয়ার ফেডারেল সিকিউরিটি সার্ভিস (এফএসবি)-র এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ক্রিমিয়া সেতুতে সন্ত্রাসী হামলার সংগঠক ছিল ইউক্রেনীয় প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের গোয়েন্দা বিভাগের প্রধান কিরিলো বুদানভ। তার সঙ্গে মন্ত্রণালয়ের কর্মী ও এজেন্টরা যুক্ত ছিল।

 

সংস্থাটি বলছে, এই বিস্ফোরণের পেছনে ইউক্রেনের হাত রয়েছে। তবে ইউক্রেনীয় এক কর্মকর্তা রাশিয়ার এই তদন্তকে ‘অর্থহীন’ বলে মন্তব্য করেছেন। বুধবার ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি অনলাইন এই খবর দিয়েছে।

 

এদিকে ক্রিমিয়া সেতুতে বিস্ফোরণের ঘটনায় আট জনকে আটকের খবর যখন পাওয়া যায়, ঠিক তখনও ইউক্রেনীয় শহর খেরসন, জাপোরিঝিয়া ও নিকোপোল থেকে বিস্ফোরণের খবর পাওয়া যাচ্ছিল। বিস্ফোরণে এখন পর্যন্ত তিনজন গুরুতর আহত হয়েছেন বলে জানা যায়।

 

কিয়েভ থেকে বিবিসির সংবাদদাতা হুগো ব্যাচেগা বলেন, রাশিয়ার দখলে থাকা ইউক্রেনের অন্যতম বড় শহর খেরসনে পাঁচটি বিস্ফোরণের শব্দ শোনা গেছে। যদিও একটি অসমর্থিত সূত্র বলেছিল, শহরটির আকাশ প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা কার্যকর আছে। কি কারণে বিস্ফোরণ হয়েছে তা স্পষ্ট নয়।

 

এ ছাড়া ইউক্রেনীয়দের নিয়ন্ত্রণে থাকা বেশ কয়েকটি শহরেও বিস্ফোরণের শব্দ শোনা গেছে। ইউক্রেনের ইমার্জেন্সি মিনিস্ট্রি জানিয়েছে, জাপোরিঝিয়ায় এবং এর আশপাশে বেশ কয়েকটি এস-৩০০ ক্ষেপণাস্ত্র ছোড়া হয়েছে। এর মধ্যে একটি ক্ষেপণাস্ত্র জাপোরিঝিয়ার উপশহরস্থ একটি আবাসিক ভবনে পড়ে। এতে ভবনটি ধসে যায়। ভবনের ধ্বংসস্তূপ থেকে এক পরিবারকে উদ্ধার করা হয়েছে।

 

এদিকে ইউক্রেনের প্রেসিডেন্টের এক মুখপাত্র বলেছেন, দিনিপ্রো অঞ্চলের নিকোপোলে গোলায় ছয় বছর বয়সী এক মেয়ে শিশুসহ তিনজন গুরুতর আহত হয়েছেন।

পূর্বকোণ/পিআর

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট