চট্টগ্রাম মঙ্গলবার, ০৭ ফেব্রুয়ারী, ২০২৩

২০ সেপ্টেম্বর, ২০২২ | ২:৩৩ অপরাহ্ণ

৭.৬ মাত্রার ভূমিকম্পে কেঁপে উঠল মেক্সিকো

শক্তিশালী ভূমিকম্প আঘাত হেনেছে উত্তর আমেরিকার দেশ মেক্সিকোতে। স্থানীয় সময় সোমবার (১৯ সেপ্টেম্বর) দুপুর ১টার দিকে দেশটির পশ্চিমাঞ্চলীয় সীমান্তবর্তী এলাকায় কম্পনটি আঘাত হানে। এতে একজনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে।

 

মার্কিন ভূতাত্ত্বিক জরিপ সংস্থার বরাতের খবরে বলা হয়েছে, সোমবার (১৯ সেপ্টেম্বর) স্থানীয় সময় দুপুর ১টা নাগাদ সীমান্তবর্তী মিচোয়াকেন এবং কোলিমা এলাকায় শক্তিশালী একটি ভূমিকম্প আঘাত হানে। রিখটার স্কেলে যার মাত্রা ছিল ৭ দশমিক ৬। ভূপৃষ্ঠ থেকে ভূমিকম্পটির গভীরতা ছিল মাত্র ১৫ কিলোমিটার।

 

আল জাজিরার খবরে বলা হয়েছে, সীমান্তবর্তী মিচোয়াকেন এবং কোলিমা এলাকায় ভূমিকম্পটি আঘাত হানে। ভূপৃষ্ঠ থেকে এর গভীরতা ছিল মাত্র ১৫ কিলোমিটার (৯ মাইল)।

 

ভূমিকম্পের ঘটনা লোকজন আতঙ্কিত হয়ে পড়ে। অনেকে ঘরবাড়ি থেকে বাইরে বেরিয়ে আসে।

 

কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, প্রশান্ত মহাসাগরীয় বন্দর মানজানিলোতে একটি ডিপার্টমেন্ট স্টোরের ছাদ ধসে একজন নিহত হয়েছে।

 

ভূমিকম্পের কেন্দ্রস্থল সংলগ্ন পশ্চিমাঞ্চলীয় রাজ্য মিচোয়াকানের বেশ কয়েকটি হাসপাতালও ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। একটি হাসপাতালের কাঁচ পড়ে একজন আহত হয়েছেন বলে জানা গেছে।

 

এক ভিডিও বার্তায় মেক্সিকোর প্রেসিডেন্ট আন্দ্রেস ম্যানুয়েল লোপে বন্দর এলাকায় ভূমিকম্পে একজনের মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তবে এর বাইরে তাৎক্ষণিকভাবে বড় ধরনের কোনও ক্ষয়ক্ষতি বা প্রাণহানির খবর পাওয়া যায়নি।

 

মার্কিন প্রশান্ত মহাসাগরীয় সুনামি সতর্কীকরণ কেন্দ্র মেক্সিকো উপকূলের কিছু অংশের জন্য সুনামি সতর্কতা জারি করেছে। তারা বলছে, জোয়ারের স্তরের ওপর তিন থেকে ৯ ফুট পর্যন্ত ঢেউ উঠতে পারে।

 

আর্নেস্টে লানজেটা নামের একজন ব্যবসায়ী ১৯ সেপ্টেম্বর দিনটিকে মেক্সিকোর ইতিহাসে ‘আতঙ্কের’ বলে উল্লেখ করেছেন। কেননা, ১৯৮৫ সালের ১৯ সেপ্টেম্বর শক্তিশালী এক ভূমিকম্পে দেশটিতে সহস্রাধিক মানুষের মৃত্যু হয়। ২০১৭ সালের একই দিনে আরেক ভূমিকম্পে মৃত্যু হয় ৩৫০ জনেরও বেশি মানুষের।

 

ন্যাশনাল অটোনোমাস ইউনিভার্সিটি অব মেক্সিকো অবশ্য বলছে, তিনটি বড় ভূমিকম্পের তারিখ মিলে যাওয়ার কোনও বৈজ্ঞানিক ব্যাখ্যা নেই। এটি পুরোপুরি কাকতালীয়।

পূর্বকোণ/পিআর/এএইচ

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট