চট্টগ্রাম রবিবার, ০২ এপ্রিল, ২০২৩

১৯ সেপ্টেম্বর, ২০২২ | ২:০৭ অপরাহ্ণ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

ব্যাংকে ঋণের আবেদনের পরদিনই লটারিতে জিতলেন ২৫ কোটি রুপি

রাঁধুনি হিসেবে কাজ করতে মালয়েশিয়ায় যাওয়ার পরিকল্পনা করছিলেন অনুপ। এজন্য তিনি ব্যাংকে তিন লাখ রুপি ঋণের জন্য আবেদন করেছিলেন। আবেদন অনুমোদনের পরদিনই লটারিতে ২৫ কোটি রুপি পাওয়ার খুদেবার্তা আসে মুঠোফোনে।

রবিবার (১৮ সেপ্টেম্বর) ভারতের সংবাদমাধ্যম এনডিটিভির এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

প্রতিবেদনে বলা হয়, কেরালার শ্রীবরাহমের অটোরিকশা চালক অনুপ ‘ওনাম বাম্পার লটারি’ জিতেছেন। ড্র’র আগেরদিন (শনিবার) তিনি লটারিটি কিনেছিলেন।

 

উচ্ছ্বসিত অনুপ বলেন, ‘আমি বিশ্বাস করতে পারিনি। আমি আমার স্ত্রীকে দেখালাম। সেও নিশ্চিত করে যে আমার কেনা লটারির নম্বরটিই বিজয়ী। এদিকে, ঋণের বিষয়ে আজ (রবিবার) ব্যাংক থেকে ফোন এসেছিল। আমি বলে দিয়েছি, আমার আর ঋণের দরকার নেই। আমি মালয়েশিয়াও যাব না।’

তিনি আরও বলেন, তারপরও আমি চিন্তার মধ্যে ছিলাম। তাই লটারি টিকিট বিক্রি করেন, এমন এক ব্যক্তিকে আমি ফোন করি। তাকে লটারির টিকিটের একটি ছবি পাঠাই। তিনিও নিশ্চিত করেন যে এটাই বিজয়ী নম্বর।

 

তিনি জানান, তিনি গত ২২ বছর ধরে লটারির টিকিট কিনছেন। আগে তিনি লটারিতে কয়েক’শ রুপি থেকে সর্বোচ্চ পাঁচ হাজার রুপি পর্যন্ত জিতেছেন। আর এবার জিতলেন ২৫ কোটি রুপি। এবার লটারি জেতার আশা করেননি তিনি। তাই টিভিতে লটারি ড্রয়ের ফলও দেখেনি। কিন্তু তাঁর মুঠোফোনে খুদেবার্তা আসে। তিনি দেখেন, লটারি জিতে গেছেন। কর কেটে নেওয়ার পর অনুপ সম্ভবত প্রায় ১৫ কোটি রুপি হাতে পাবেন।

লটারি জেতার অর্থ দিয়ে কী করবেন এমন প্রশ্নে অনুপ বলেন, তার প্রথম অগ্রাধিকার হলো, নিজ পরিবারের জন্য একটি বাড়ি তৈরি করা। তার ঋণ পরিশোধ করা। এছাড়া, আত্মীয়দের সাহায্য ও কিছু দাতব্য কাজ করার ইচ্ছা রয়েছে তার। এ ছাড়া কেরালায় হোটেল ব্যবসা শুরু করার কথা ভাবছেন তিনি। তবে তিনি আবারও লটারি কেনার ইচ্ছার কথা জানিয়েছেন।

কাকতালীয়ভাবে গত বছর ওনাম বাম্পার লটারিতে ১২ কোটি রুপি জিতেছিলেন এক অটোরিকশাচালক।

 

পূর্বকোণ/এএস

শেয়ার করুন