চট্টগ্রাম বৃহষ্পতিবার, ২৯ সেপ্টেম্বর, ২০২২

সর্বশেষ:

৮ আগস্ট, ২০২২ | ৪:৪৪ অপরাহ্ণ

অনলাইন ডেস্ক

রুবল দিয়ে রাশিয়ার গ্যাস কিনবেন এরদোয়ান

রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের সঙ্গে বৈঠকের পর তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোয়ান বলেছেন, তুরস্ক রুবল দিয়ে রাশিয়ার কাছ থেকে গ্যাস কিনবে।

 

ইউক্রেন যুদ্ধ ঘিরে যখন পশ্চিমাদের সঙ্গে তীব্র উত্তেজনা চলছে, সেই সময় রাশিয়ার সঙ্গে বন্ধুত্ব আরও বাড়াচ্ছে তুরস্ক। রাশিয়ার দাবি মেনে তারা গ্যাস কিনবে বলে ঠিক করেছে। গ্যাসের আংশিক দাম রুবল দিয়ে মেটানো হবে। রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট পুতিনের সঙ্গে বৈঠকের পর এই ঘোষণা দিয়েছেন এরদোয়ান।

রাশিয়া বলছে, পুতিনের সঙ্গে এরদোয়ানের চার ঘণ্টা ধরে বৈঠক হয়েছে। তবে তুরস্ক গ্যাসের দামের কত শতাংশ রুবলে মেটাবে তা মস্কো বা ইস্তাম্বুল জানায়নি। এরদোয়ানের এই সিদ্ধান্তে আমেরিকা খুব একটা খুশি হবে না। রাশিয়া ইউক্রেন আক্রমণ করার পর আমেরিকা তাদের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে। তারা চায়, বাকি দেশগুলোও যেন এই নিষেধাজ্ঞা মেনে চলে।

 

মস্কো থেকে ফেরার পথে বিমানে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে এরদোয়ান বলেছেন, অর্থনৈতিক ক্ষেত্রে রাশিয়া ও তুরস্কের সম্পর্ক আরও ভালো করার সুযোগ আছে।

 

ইউরোপের অল্প কয়েকটি দেশ এখনও রাশিয়ায় বিমান চালায়। তার মধ্যে তুরস্ক একটি। রাশিয়ার পর্যটকরা যাতে তুরস্কে এসে বিপাকে না পড়েন, সেজন্য তাদের জন্য তুরস্কের পাঁচটি ব্যাংক বিশেষ পেমেন্ট ব্যবস্থা চালু করে রেখেছে।

 

তুরস্কে এখন সবচেয়ে বেশি সংখ্যায় যান জার্মানির পর্যটকরা। তারপরই আছেন রাশিয়া থেকে আসা পর্যটকরা।

তুরস্ক কি রাশিয়ার গ্যাসের ওপর নির্ভরশীল?

 

তুরস্ক ন্যাটোর সদস্য। তারা রাশিয়ার সঙ্গে বাণিজ্য বাড়াতে চায়। তারা রাশিয়ার তেল ও গ্যাসের উপর অনেকটাই নির্ভর করে। ২০২১ সালে তুরস্ক তাদের চাহিদার অর্ধেক গ্যাস রাশিয়া থেকে আমদানি করেছিল। তাছাড়া তাদের তেলের এক চতুর্থাংশ আসে রাশিয়া থেকে। রাশিয়ার সঙ্গে যৌথভাবে তারা প্রথম পরমাণু বিদ্যুৎ কেন্দ্রও বানাচ্ছে।

সূত্র: ডয়েচে ভেলে

 

 

পূর্বকোণ/আর

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট