চট্টগ্রাম মঙ্গলবার, ০৯ আগস্ট, ২০২২

সর্বশেষ:

৩ জুলাই, ২০২২ | ৩:৩২ অপরাহ্ণ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

বসকে না বলে টয়লেটে গিয়ে চাকরি হারাল কর্মী

বসকে না বলে টয়লেটে যাওয়ায় কর্মীকে চাকরিচ্যুত করার অদ্ভুত ঘটনা ঘটেছে লন্ডনের চলমান উইম্বলডনে। এমন বিভিন্ন অজুহাতে অস্থায়ী অনেক কর্মীকে ছেঁটে দিচ্ছে উইম্বলডন কর্তৃপক্ষ। সূত্র: দ্য গার্ডিয়ান

মূলত কর্মী সংখ্যা প্রয়োজনের চেয়ে বেশি হয়ে যাওয়ায় বিভিন্ন অজুহাতে হাউসকিপিং আর হসপিটালিটি বিভাগ থেকে কর্মী ছাটাই করছে কর্তৃপক্ষ। টুর্নামেন্টটির অস্থায়ী তিন কর্মীর দাবি, কাজ শেষ করে পান করছিলেন, সে কারণেও চাকরি গেছে অনেক জনের।

এখানেই শেষ নয়। উইম্বলডনের ১৯ বছর বয়সী এক খণ্ডকালীন কর্মী জানান, মধ্যাহ্ন বিরতিতে তার এক বন্ধু সেন্টার কোর্টের পাশে বসে স্ট্রবেরি খাচ্ছিলেন, এরপরই মেইল পান, তাকে আর কোনো শিফটে কাজ দেওয়া হবে না। এরপর থেকে যাদের চাকরি এখনো আছে, তাদের মাঝেও বিরাজ করছে আতঙ্ক।

আরেক অস্থায়ী কর্মী বিষয়টিকে ‘লজ্জাজনক’ আখ্যা দিয়ে বলেন, ‘আমি মনে করি এটাই তাদের অব্যবস্থাপনার দিকটা তুলে ধরে। তারা যেখান থেকে পারছে, লোক ছাটাই করছে। তারা মূলত বেশি লোক নিয়ে ফেলেছে, আর বলছে এখানে পর্যাপ্ত পরিমাণ দর্শক আসছে না। আর তাই তারা তাদের কাজটা করছে, লোক ছাটাই করছে।’

যদিও অল ইংল্যান্ড লন টেনিস অ্যান্ড ক্রকে ক্লাব জানিয়েছে, প্রতিটি কর্মীই তাদের কাছে সমানভাবে গুরুত্বপূর্ণ।

এভাবে কর্মী ছাটাইয়ের মূল কারণ হতে পারে দর্শক স্বল্পতার। উইম্বলডন দেখতে চলতি আসরে দর্শক আসছেন গড়পড়তার চেয়ে অনেক কম। স্বাভাবিকভাবে ৪২০০০ দর্শক ধারণক্ষমতা থাকলেও সবশেষ বুধ ও বৃহস্পতিবার সেখানে দর্শক ছিল মাত্র ৩৮৫০০ জন। টিকিট বিক্রি হচ্ছে না, এ কারণে কোষাগারেও পড়েছে টান। যারই ফলে অদ্ভুত পন্থায় কর্মী ছাটাইয়ের পথে হাঁটছে কর্তৃপক্ষ।

পূর্বকোণ/এস

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট