চট্টগ্রাম সোমবার, ০১ মার্চ, ২০২১

সর্বশেষ:

২৫ জুলাই, ২০১৯ | ৯:২৬ অপরাহ্ণ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

বরিস জনসন সর্ম্পকে যা অনেকেরই অজানা

খুব আত্মবিশ্বাসী মানুষ ব্রিটেনের নতুন প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনকে বলে জানেন সবাই। চালচলনেও আভিজাত্য তার। মাতৃভাষার সঙ্গে প্রায়ই ল্যাটিন ও গ্রিক শব্দ চয়ন করেন খুব যত্নের সঙ্গে। পর্যবেক্ষকরা বলছেন, তার জীবনের শুরু হয়েছিল অন্যভাবে। এমনকি যৌবনেও তিনি কাজকর্মে বিশেষ সুবিধা করে উঠতে পারেননি।

এখানে রইল তার সম্পর্কে কিছু তথ্য যা অনেকেই জানেন নাঃ

গ্লু ইয়ার নামক রোগে আক্রান্ত হয়ে টানা আট বছর কানে শুনতে পেতেন না বরিস। ইয়ার ক্যানাল এক ধরনের তরলে ভর্তি থাকার জন্যই শুনতে পেতেন না। অস্ত্রোপচার করার পরে তিনি ওই রোগ থেকে মুক্তি পান।

যৌবনে ছিলেন সাংবাদিক তিনি। চাকরি করতেন টাইমস অব লন্ডনে। একটি সংবাদের সঙ্গে এক ব্যক্তির উদ্ধৃতি হিসাবে এমন কিছু লিখেছিলেন যা তিনি আদৌ বলেননি। ধরা পড়ার পরে তার চাকরি যায়। রিপোর্টার হিসাবে কমে যায় তার বিশ্বাসযোগ্যতাও।

বরিস জনসন খুব স্বাস্থ্য সচেতন। প্রায়ই তাকে জগিং করতে বা সাইকেল চালাতে দেখা যায়। তবে তিনি সবচেয়ে ভালোবাসেন রাগবি খেলতে। খেলতে গিয়ে মাঝে মাঝেই খুব উত্তেজিত হয়ে পড়েন। নানা দুর্ঘটনার শিকারও হন।

আমেরিকার প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের মতো বরিস জনসনের চুলও সোনালি রঙের। কিন্তু অনেক পার্থক্য আছে দু’জনের হেয়ার স্টাইলে। চুলের ফ্যাশনের ব্যাপারে ট্রাম্প যতই সচেতন বরিস জনসন ঠিক তার উল্টো। তার চুল সবসময়েই এলোমেলো। যখন সাংবাদিক থাকাবস্থায়ও তার চুল এমন থাকত। এখন প্রধানমন্ত্রী হয়েছেন, কিন্তু তার চুল একই রকম আছে।

 

 

পূর্বকোণ/রাশেদ

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 287 People