চট্টগ্রাম শুক্রবার, ০৫ মার্চ, ২০২১

সর্বশেষ:

২৩ জুলাই, ২০১৯ | ৫:২৩ অপরাহ্ণ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

বিশ্বের সবচেয়ে বড় সোলার পাওয়ার প্ল্যান্ট তৈরি করলো মরক্কো

বিশ্বকে সৌরশক্তির দিক থেকে নেতৃত্ব দিতে সবচেয়ে বড় নবায়নযোগ্য বিদ্যুৎ উৎপাদনের পাওয়ার প্ল্যান্ট বানিয়েছে মরক্কো। ইতোমধ্যেই তিন হাজার একরেরও বেশি জায়গা নিয়ে গড়ে উঠেছে বৃহত্তম এই সোলার ফার্ম এককভাবে দেশটির দক্ষিণাঞ্চলীয় স্থান সিটি উরজাজেটে। উত্তর আফ্রিকার দেশ

উরজাজেট সোলার পাওয়ার এ প্ল্যান্ট স্টেশনকে দ্য নূর উরজাজেট কমপ্লেক্সও বলা হয়ে থাকে। প্ল্যান্টটির বিদুৎশক্তিতে এককভাবে ইউরোপের রাজধানী শহর প্রাগের সমান একটি অঞ্চল ও মরক্কেশের আকারের মতো দুইটি শহর চলবে। একইসঙ্গে কম হলেও এক মিলিয়ন মানুষ পাবেন এর বিদ্যুৎ সুবিধা। সাহারা মরভূমির প্রবেশপথে অবস্থিত ৩৫০০টি ফুটবল মাঠের সমান এ সোলার ফার্মটি কোনো রকম প্রতিকূলতা সৃষ্টি না করেই সরবরাহ করবে ৫৮০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ। এতে সাত লাখ ৬০ হাজার টন কার্বন নির্গমন থেকে রক্ষা করবে।

আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমসমূহ বলছে, মরক্কো সৌর বিদ্যুৎশক্তি উৎপাদনে বিশ্বের সবচেয়ে উচ্চাকাঙ্ক্ষী টার্গেট নিয়েছে। ২০২০ সালের মধ্যে নবায়নযোগ্য এ বিদ্যুৎ উৎপাদনের উৎস থেকে মোট চাহিদার ৪২ শতাংশ সরবরাহ করার লক্ষ্যমাত্রা অর্জন করতে চেষ্টা চালাচ্ছে দেশটি। এছাড়া ইতোমধ্যে এ নূর উরজাজেট কমপ্লেক্স থেকে ৩৫ শতাংশ বিদ্যুৎ নবায়নযোগ্য হওয়ার কারণে দেশটিও লক্ষ্যমাত্রা অর্জনের পথে এগিয়ে যাচ্ছে। আফ্রিকার সবচেয়ে লম্বা প্ল্যান্টটির ২৪৩ মিটার টাওয়ার ধারাবাহিকভাবে মলটেন সল্ট তৈরি করে, যা মেলটেড হয়ে বিদ্যুৎ উৎপাদন করবে বলে মনে করা হচ্ছে।

মরক্কোর নবায়নযোগ্য বিদ্যুৎশক্তি কোম্পানি এজেন্সি ফর সাসটেনেবল এনার্জির (এমএএসইএন) সিনিয়র প্রজেক্ট ম্যানেজার ইয়াসির বাদিহ জানান, মরক্কো একটি উদীয়মান দেশ হিসেবে পরিগণিত। ২০১০ সালের তুলনায় এখন বিদ্যুৎ চাহিদা দ্বিগুণ হয়ে গেছে। তাই জীবাশ্ম জ্বালানি এড়িয়ে ২০৩০ সালের মধ্যে নবায়নযোগ্য বিদ্যুৎশক্তিতে বিদ্যুৎ সংশ্লিষ্ট বিশ্বের শীর্ষ দেশগুলোর একটি হতে চাই ও মরক্কো সে পথেই যাচ্ছে।

পূর্বকোণ/রাশেদ

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 682 People