চট্টগ্রাম রবিবার, ২৯ মে, ২০২২

২৭ জানুয়ারি, ২০২২ | ১০:০৫ অপরাহ্ণ

পূর্বকোণ ডেস্ক

প্লাস্টিকে ৮ দিন, মানুষের ত্বকে ২১ ঘণ্টা বাঁচে ওমিক্রন: গবেষণা

করোনার নতুন ধরন ওমিক্রন মানুষের ত্বকে ২১ ঘণ্টা ও প্লাস্টিকের উপরিভাগে ৮ দিন বেঁচে থাকে বলে জানিয়েছেন জাপানের কিয়োটো প্রিফেকচারাল ইউনিভার্সিটি অব মেডিসিনের গবেষকেরা । জাপানের গবেষকদের বরাত দিয়ে এই তথ্য প্রকাশ করেছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স। 

জাপানের কিয়োটো প্রিফেকচারাল ইউনিভার্সিটি অব মেডিসিনের গবেষকেরা গবেষণাগারে একাধিক পরীক্ষার পর এসব তথ্য জানিয়েছেন । তবে তাদের এই গবেষণা নিবন্ধের পর্যালোচনা এখনো সম্পন্ন হয়নি। তারা বলছেন, ওমিক্রন স্বাভাবিক পরিবেশে অপরিবর্তিত থাকে। এ কারণে অমিক্রনের সংক্রমণ ক্ষমতা থাকে। ধারণা করা হচ্ছে, এ কারণেই ডেলটা পেছনে ফেলে সবচেয়ে প্রভাব বিস্তারকারী ধরন হয়ে উঠেছে ওমিক্রন। গবেষণায় উল্লেখ করা হয়েছে, প্লাস্টিকের উপরিভাগে আলফা, বিটা, গামা ও ডেলটা ধরন টিকে থাকতে পারে যথাক্রমে ৫৬ ঘণ্টা, ১৯১ ঘণ্টা, ১৫৬ ঘণ্টা, ৫৯ ঘণ্টা ও ১১৪ ঘণ্টা। কিন্তু অমিক্রন বেঁচে থাকতে পারে ১৯৩ ঘণ্টা।

এই গবেষণার জন্য মৃতের দেহ থেকে নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছিল। এতে দেখা গেছে, করোনাভাইরাসের প্রথম ধরনটি সাড়ে ৮ ঘণ্টা বেঁচে থাকে মৃতের ত্বকে। এর বিপরীতে আলফা বেঁচে থাকে সাড়ে ১৯ ঘণ্টা, বিটা বেঁচে থাকে সাড়ে ১৯ ঘণ্টা, গামা বেঁচে থাকে সাড়ে ১১ ঘণ্টা, ডেলটা বেঁচে থাকে সাড়ে ১৭ ঘণ্টা এবং ওমিক্রন বেঁচে থাকে সাড়ে ২১ ঘণ্টা।

পূর্বকোণ/আরআর/এএইচ

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট