চট্টগ্রাম শনিবার, ১৬ অক্টোবর, ২০২১

১৯ সেপ্টেম্বর, ২০২১ | ১:৫০ অপরাহ্ণ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

তিনদিনের মহাকাশ ভ্রমণ শেষে ফিরলেন ৪ পর্যটক

মহাকাশে প্রথমবারের মতো ভ্রমণ করে নতুন মাইলফলক স্পর্শ করলেন চার পর্যটক। কক্ষপথে তিন দিনের ভ্রমণ শেষে শনিবার নিরাপদে ফিরেছেন তারা। সাধারণ পর্যটক হিসেবে মহাকাশ ও পৃথিবীর কক্ষপথে ভ্রমণ এবারই প্রথম। খবর বিবিসির।
রবিবার (১৯ সেপ্টেম্বর) এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি। গত বুধবার যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডার কেনেডি স্পেস সেন্টার থেকে চার বেসামরিক নাগরিককে নিয়ে পৃথিবীর কক্ষপথের উদ্দেশে রওনা হয় স্পেসএক্সের ফ্যালকন নাইন রকেটটি। আর এ মহাকাশযাত্রার নাম দেওয়া হয় ইন্সপিরেশন ফোর।
মার্কিন ধনকুবের এলন মাস্কের মালিকানাধীন রকেট নির্মাতা প্রতিষ্ঠান স্পেসএক্সের ড্রাগনের ফ্যালকন নাইন রকেটটিতে করে মহাকাশে যাওয়া এই চার পর্যটকের কেউই পেশাগতভাবে নভোচারী নয়। তাদের সবাই সাধারণ মানুষ, শখের বশেই মহাকাশে ঘুরতে যাওয়া। আর এর মধ্য দিয়ে প্রথমবারের মতো পৃথিবীর কক্ষপথে কেবল বেসামরিক নাগরিকদের বহনকারী নভোযান পাঠাল স্পেসএক্স।
বিবিসি জানিয়েছে, শনিবার যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডা উপকূলে স্থানীয় সময় সন্ধ্যা ৭টার কিছু সময় পর চার জন পর্যটকবাহী স্পেসএক্স ইন্সপিরেশন ফোর রকেটটি নিরাপদে অবতরণ করে। চারটি বড় প্যারাশুটের মাধ্যমে ধীরে ধীরে ফ্লোরিডা উপকূলবর্তী আটলান্টিক মহাসাগরে অবতরণ করে। অবতরণের এই দৃশ্য সরাসরি সম্প্রচার করে রকেট নির্মাতা প্রতিষ্ঠান স্পেসএক্স।
টেসলার প্রতিষ্ঠাতা ইলন মাস্কের কোম্পানি স্পেস এক্সের পক্ষ থেকে মহাকাশযাত্রায় পর্যটকদের খরচের বিষয়টি জানানো হয়নি। তবে টাইম ম্যাগাজিন বলছে, চারটি আসনের টিকিটের মূল্য ২০ কোটি মার্কিন ডলার।
এই মহাকাশ ভ্রমণে চার পর্যটকের সঙ্গে বিভিন্ন পরীক্ষা-নিরীক্ষার যন্ত্র যুক্ত করা হয়। এ সময় হৃৎস্পন্দন থেকে শুরু করে তাদের তথ্য বিশ্লেষণ করে দেখা হচ্ছে। মহাকাশ ভ্রমণে স্বাস্থ্যের ওপর প্রভাবের বিষয়টি খতিয়ে দেখবেন বিজ্ঞানীরা।
২০২১ সালে ২০ জুলাই। বিশ্বের শীর্ষ ধনী জেফ বেজোস অ্যাপলো ১১-র চাঁদে অবতরণের ৫২তম বার্ষিকীকে সম্মান জানাতে এই দিনটিই মহাকাশ অভিযানের জন্য বেছে নিয়েছিলেন। এর আগে ভার্জিন গ্রুপের প্রতিষ্ঠাতা স্যার রিচার্ড ব্র্যানসন মহাকাশ ভ্রমণে যান। তিনিই বিশ্বে প্রথমবারের মতো নিজস্ব ভার্জিন গ্যালাক্টিকের প্লেনে চড়ে গত ১০ জুলাই মহাশূন্যে যান।
মহাকাশে ভ্রমণের সময় চার পর্যটক ঘণ্টায় ১৭ হাজার পাঁচশ মাইল বেগে পৃথিবীর কক্ষপথ প্রদক্ষিণ করছেন। এর মধ্যে গত শুক্রবার তারা পৃথিবীর কক্ষপথ থেকেই জনপ্রিয় হলিউড তারকা টম ক্রুজের সঙ্গে সরাসরি ভিডিওকলে যুক্ত হয়ে কথা বলেন। সেসময় চার জন পর্যটকই নিজেদের মহাকাশে ভ্রমণের অনুভূতিসহ আপডেট তথ্য জানিয়েছিলেন। বিপরীতে সেসময় টম ক্রুজ মহাকাশে চলচ্চিত্র নির্মাণের আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

 

পূর্বকোণ/এসি

শেয়ার করুন
  • 3
    Shares
The Post Viewed By: 267 People

সম্পর্কিত পোস্ট