চট্টগ্রাম সোমবার, ২০ সেপ্টেম্বর, ২০২১

সর্বশেষ:

২৪ জুন, ২০২১ | ১১:৪৫ পূর্বাহ্ণ

নতুন করে করোনা সংক্রমণ বেড়েছে ভারতে

করোনার মহামরীর বিপর্যস্ত ভারতে কিছুটা স্বস্তির মধ্যে দৈনিক সংক্রমণ ও মৃত্যু কমে আসার যে প্রবণতা তাতে আবারও ছেদ পড়ল। গত ২৪ ঘণ্টার ব্যবধানে ভারতে বেড়েছে করোনায় নতুন আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা, তবে আগের দিনের তুলনায় মৃত্যু কিছুটা কমেছে।
দেশটির কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের বুলেটিন অনুযায়ী, বুধবার ভারতে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৫৪ হাজার ৬৯ জন এবং মারা গেছেন ১ হাজার ৩২১ জন।

আগের দিন মঙ্গলবার ভারতে করোনায় আক্রান্ত নতুন রোগীর সংখ্যা ছিল ৫০ হাজার ৮৪৮ জন এবং মৃতের সংখ্যা ছিল ১ হাজার ৩৫৮ জন। ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা বেড়েছে ৩ হাজার ২২১ জন এবং মৃতের সংখ্যা কমেছে ৩৭ জন।

বুধবার মৃত্যুর নিরিখে দেশের শীর্ষ চারটি রাজ্য ছিল -মহারাষ্ট্র (৫০৮), তামিলনাড়ু (১৬৬), কেরল (১৫০) এবং কর্নাটক (১২৩)। বাকি রাজ্যে মৃত্যু ৫০-এর আশপাশে বা নীচে। তবে টানা ৪২ দিন ধরে ভারতে করোনায় প্রতিদিন আক্রান্তের তুলনায় সুস্থ হয়ে ওঠা রোগীদের সংখ্যা বেশি থাকার যে প্রবণতা লক্ষ্য করা যাচ্ছে, তা বুধবারও অব্যাহত ছিল। এই দিন দেশটিতে করোনা থেকে আরোগ্য লাভ করে বাড়ি ফিরে গেছেন ৬৮ হাজার ৮৮৫।

দেশটিতে বর্তমানে সক্রিয় করোনা রোগী আছেন ৬ লাখ ২৭ হাজার ৫৭ জন। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের বুলেটিনে জানানো হয়েছে, ২৪ ঘণ্টায় ভারতে করোনা সংক্রমণের শতকরা হার ছিল ২ দশমিক ৯১ শতাংশ। ভারতে প্রথম করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছিল ২০২০ সালের ৩০ জানুয়ারি, কেরালা রাজ্যে। তার পর থেকে এ পর্যন্ত দেশটি করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন মোট ৩ কোটি ৮২ হাজার ৭৭৮ জন এবং মারা গেছেন মোট ৩ লাখ ৯১ হাজার ৯৮১ জন। এছাড়া মহামারি শুরুর পর থেকে এ পর্যন্ত দেশটিতে করোনায় আক্রান্তের পর সুস্থ হয়ে উঠেছেন মোট ২ কোটি ৯০ লাখ ৬৩ হাজার ৭৪০ জন।

চলতি বছর ১৬ জানুয়ারি থেকে গণটিকাদান কর্মসূচি শুরু করেছে ভারত। দেশটির কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, গত ২৪ ঘণ্টায় ভারতে টিকা দেওয়া হয়েছে ৬৪ লাখ ৮৯ হাজার ৫৯৯ জনকে। গত প্রায় ছয় মাস ধরে চলমান এই কর্মসূচিতে এ পর্যন্ত ভারতে টিকার আওতায় আনা গেছে ৩০ কোটি ১৬ লাখ ২৬ হাজার ২৮ জনকে। সূত্র: হিন্দুস্তান টাইমস, আনন্দবাজার

 

পূর্বকোণ/এসি

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 290 People

সম্পর্কিত পোস্ট