চট্টগ্রাম বুধবার, ০৩ মার্চ, ২০২১

৯ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ | ১২:০৯ অপরাহ্ণ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

মিয়ানমারের সঙ্গে সম্পর্ক স্থগিতের ঘোষণা নিউজিল্যান্ডের

মিয়ানমারে নির্বাচিত সরকারকে উৎখাত করে সামরিক শাসন জারির প্রতিক্রিয়ায় দেশটির সঙ্গে সম্পর্ক স্থগিত করার ঘোষণা দিয়েছে নিউজিল্যান্ড। সেই সঙ্গে মিয়ানমারের ঊর্ধ্বতন সেনা কর্মকর্তাদের নিউজিল্যান্ড সফরেও নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে।

নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জেসিন্ডা অডুর্ন মঙ্গলবার এ ঘোষণা দেন বলে রয়টার্সের এক প্রতিবেদনে জানানো হয়।

নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জাসিন্দা আর্ডার্ন বলেন, সামরিক অভ্যুত্থানের পর মিয়ানমারের সঙ্গে উচ্চ-পর্যায়ের সব রাজনৈতিক ও সামরিক যোগাযোগ স্থগিত করা হয়েছে। এদিকে ফেসবুকের সরাসরি সম্প্রচার থেকে জানা গেছে, মঙ্গলবার মিয়ানমারের রাজধানী নেপিডোতে অভ্যুত্থানবিরোধী বিক্ষোভ দমনে জলকামান ব্যবহার করা হয়েছে।

২০১৮ থেকে ২০২১ সাল পর্যন্ত মিয়ানমারকে ৪ কোটি ২০ লাখ ডলারের সহায়তা দিয়েছে নিউজিল্যান্ড। 

গত ১ ফেব্রুয়ারি মিয়ানমারে অভ্যুত্থানের মধ্য দিয়ে সামরিক বাহিনীর ক্ষমতা দখল এবং নির্বাচিত সরকারের নেত্রী অং সান সু চিসহ জ্যেষ্ঠ নেতাদের বন্দি করার প্রতিক্রিয়ায় দেশটিতে টানা তিন দিন ধরে প্রতিবাদ চলছে।

নিউজিল্যান্ড মিয়ানমারের ওই সেনা সরকারকে স্বীকৃতি দেয়নি। সেই সঙ্গে সু চিসহ সকল রাজবন্দিদের মুক্তি দিয়ে বেসামরিক সরকারের হাতে ক্ষমতা ফিরিয়ে দেওয়ার আহবান জানিয়েছে। 

নিউজিল্যান্ডের পররাষ্ট্রমন্ত্রী নানাইয়া মাহুতা এক বিবৃতিতে বলেছেন, তার সরকার মিয়ানমারের সেনা নেতৃত্বের ওপর ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা আরোপেরও সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

পূর্বকোণ/পিআর

মিয়ানমারের সামরিক নেতা জেনারেল মিন অং হ্লাইং ক্ষমতা দখলের পর সোমবার প্রথমবারের মত টেলিভিশনে ভাষণ দেন এবং সেখানে অভ্যুত্থানের সাফাই গেয়ে ফের নির্বাচন অনুষ্ঠানের প্রতিশ্রুতি দেন।

গত নভেম্বরের নির্বাচন ‘সুষ্ঠু ছিল না’ দাবি করে তিনি বলেন, ক্ষমতাসীন সামরিক সরকার আবার নতুন করে নির্বাচন দেবে এবং বিজয়ীর হাতে ক্ষমতা তুলে দেবে।

পূর্বকোণ/পিআর

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 309 People

সম্পর্কিত পোস্ট