চট্টগ্রাম শুক্রবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী, ২০২১

সর্বশেষ:

৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ | ২:৫৩ অপরাহ্ণ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

যুক্তরাষ্ট্রের অভিবাসনে আসছে বড় পরিবর্তন

জো বাইডেন প্রেসিডেন্ট হবার পর যুক্তরাষ্ট্রের অভিবাসনব্যবস্থায় আসছে বড় পরিবর্তন। ইতোমধ্যে অভিবাসন নিয়ে ৩টি গুরুত্বপূর্ণ নির্বাহী আদেশ জারি করেছেন তিনি।

এর আগে যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প নানাভাবে পারিবারিক অভিবাসনে ‘পাবলিক চার্জ’ নামের বিধিনিষেধ আরোপ করেছিলেন। আর জো বাইডেন এসে পারিবারিক অভিবাসনের ক্ষেত্রে ‘পাবলিক চার্জ’ বিষয়টি যাচাইয়ের নির্দেশ দেন তিনি।

প্রতিবছর যুক্তরাষ্ট্রে ৬ লাখ ৭৫ হাজার পারিবারিক ভিসা দিয়ে থাকে। এই ভিসাপ্রাপ্তিকে দুরূহ করার জন্য ট্রাম্প নানা কড়াকড়ি আরোপ করেছিলেন। পুরনো আইনের জের ধরে মার্কিন সরকারের ভর্তুকির মুখে পড়বে—এমন লোকজনকে গ্রিন কার্ড না দেয়ার নির্দেশনা জারি করা হয়েছিল। ‘পাবলিক চার্জ’ নামের এই নির্দেশনা নিয়ে অভিবাসী গ্রুপগুলো আদালতে যাওয়ার পরও ট্রাম্পের এ নির্দেশনা বহাল থাকে।

ট্রাম্প আইন করে পারিবারিক অভিবাসন বন্ধ করে দেয়ার কথা বলেছিলেন। ট্রাম্পের প্রস্তাব ছিল, মেধাভিত্তিক অভিবাসনের। নানা কালাকানুন করে শ্বেতাঙ্গবহুল দেশগুলো থেকে আমেরিকায় অভিবাসনের পথ উন্মুক্ত রাখার চেষ্টা করছিলেন ট্রাম্প।

কিন্তু ক্ষমতা গ্রহণ করে অভিবাসন নিয়ে ট্রাম্পের উল্টো যাত্রা থেকে দ্রুত বেরিয়ে আসার চেষ্টা করছেন প্রেসিডেন্ট বাইডেন।তিনি পরিবার থেকে বিচ্ছিন্ন অভিবাসী শিশুদের মা-বাবার কাছে ফিরিয়ে দেয়ার জন্য টাস্কফোর্স গঠন করেছেন। নথিপত্রহীন অভিবাসীদের বিতাড়ন সাময়িকভাবে স্থগিত ঘোষণা করেছেন।

পৃথক আদেশে প্রেসিডেন্ট বাইডেন অপ্রাপ্তবয়স্ক হিসেবে আমেরিকায় আসা লোকজনের অভিবাসনপ্রক্রিয়া নিশ্চিত করার নির্দেশ দিয়েছেন।

এছাড়া, বন্ধ করে দেয়া ‘ডেফার্ড একশন ফর চাইল্ডহুড এরাইভ্যালস’ (ডাকা) নামের কর্মসূচি আবার চালু করেছেন বাইডেন। অভিবাসী এই গ্রুপকে আমেরিকার নাগরিকত্ব দেয়ার সুযোগ সৃষ্টি করবেন বলে জানিয়েছেন তিনি।

এদিকে বাইডেনের এ উদার প্রশাসননীতি যুক্তরাষ্ট্রের জন্য ক্ষতিকর বলে মনে করছেন রক্ষণশীলরা। তাদের মতে, এ উদারনীতির ফলে সীমান্তে লোকজনের ভিড় বেড়ে গিয়ে মানবিক সংকট সৃষ্টি হবে। এ ছাড়া নথিপত্রহীন অভিবাসীদের প্রতি অনুকম্পা ঘোষণার মাধ্যমে ভুল বার্তা দেয়া হবে।

তবে অভিবাসী গ্রুপগুলো ও উদারনীতিকরা মনে করে, আমেরিকার রাজনৈতিক ও অর্থনৈতিক উন্নতির জন্য অভিবাসনকে সহজ-মানবিক করার কোনো বিকল্প নেই।
পূর্বকোণ/এএ

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 1150 People