চট্টগ্রাম রবিবার, ১৭ জানুয়ারি, ২০২১

সর্বশেষ:

৬ জানুয়ারি, ২০২১ | ২:১৮ অপরাহ্ণ

যুক্তরাষ্ট্রে সিনেটের দুই আসনের নির্বাচনে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই

যুক্তরাষ্ট্রের জর্জিয়ায় মার্কিন কংগ্রেসের উচ্চকক্ষ সিনেটের দুই আসনের নির্বাচনে ডেমোক্রেটিক ও রিপাবলিকান পার্টির প্রার্থীদের মধ্যে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই চলছে।

বার্তাসংস্থা রয়টার্স জানায়, জর্জিয়ার সিনেট নির্বাচনে রিপাবলিকান প্রার্থী কেলি লফলারের বিপরীতে লড়ছেন ডেমোক্রেট প্রার্থী আটলান্টার ঐতিহাসিক কৃষ্ণাঙ্গ গির্জার যাজক রাফায়েল ওয়ার্নক। অন্যদিকে রিপাবলিকান ডেভিড পের্ডুর বিপরীতে লড়ছেন ডেমোক্রেট প্রার্থী ডকুমেন্টারি চলচ্চিত্র নির্মাতা জন অসফ।

মঙ্গলবার অনুষ্ঠিত এই নির্বাচনের ৯৬ শতাংশ ভোট গণনা শেষে একটি আসনে রিপাবলিকান প্রার্থী ডেভিড পারডুকে প্রতিদ্বন্দ্বী জন অসফের চেয়ে কয়েকশ ভোটের ব্যবধানে এগিয়ে থাকতে দেখা গেছে।

অন্য আসনে ডেমোক্র্যাট প্রার্থী রেভরেন্ড রাফায়েল ওয়ারনক রিপাবলিকান কেলি লেফলারের চেয়ে এগিয়ে আছেন, যদিও দুইজনের ভোটের ব্যবধান এক শতাংশেরও কম; জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

সেনেটের নিয়ন্ত্রণ কাদের হাতে থাকবে তা জর্জিয়ার এ দুই আসনের ফলের উপরই নির্ভর করছে।

ডেমোক্রেটরা দুটি আসনই ছিনিয়ে নিতে পারলে উচ্চকক্ষে ডেমোক্র্যাট-রিপাবলিকান সদস্য সংখ্যা দাঁড়াবে ৫০-৫০। কোনো বিলে যদি ভোটের পরিমাণও এমন হয়, তখন নিয়ম অনুযায়ী ভাইস প্রেসিডেন্ট ‘সিদ্ধান্তমূলক ভোটটি’ দেওয়ার সুযোগ পাবেন।

তেমনটা হলে ২০ জানুয়ারি শপথ নিতে যাওয়া যুক্তরাষ্ট্রের নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনকে তার সংস্কার পরিকল্পনা কার্যকরে আর রিপাবলিকানদের শক্ত বাধার মুখে পড়তে হবে না। এবার কংগ্রেসের নিম্নকক্ষ হাউস অব রিপ্রেজেন্টেটিভেও ডেমোক্রেটদের সংখ্যাগরিষ্ঠতা আগেরবারের চেয়ে দুর্বল।

অন্যদিকে রিপাবলিকানরা জর্জিয়ার একটি আসন ধরে রাখতে পারলেও সেনেট তাদের নিয়ন্ত্রণে থাকবে; সেক্ষেত্রে নতুন ডেমোক্রেট প্রেসিডেন্টের রাজনৈতিক ও আইনি যেকোনো নিয়োগ তারা চাইলেই আটকে দিতে পারবে।

বুথফেরত বেশ কয়েকটি জরিপেও জর্জিয়ায় দুই আসনে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হতে যাচ্ছে বলে আভাস দেওয়া হয়েছিল। 

পারডু, অসফ, ওয়ারনক, লেফলার- এ চার প্রার্থীর কেউই গত ৩ নভেম্বরের ভোটে সরাসরি নির্বাচিত হতে প্রয়োজনীয় ৫০ শতাংশ সমর্থন পাননি। তাই জর্জিয়ার নির্বাচনী আইনানুযায়ী, দ্বিতীয় দফায় ভোট করতে হয়েছে।

দীর্ঘদিন ধরেই রিপাবলিকান ঘাঁটি হিসেবে পরিচিত জর্জিয়ায় নভেম্বরের নির্বাচনে বাইডেন জয়ী হওয়ায় সবাই বেশ অবাক হয়েছিলেন। ১৯৯২ সালের পর গত বছর প্রথমবারের মতো রাজ্যটিতে কোনো ডেমোক্রেটিক প্রেসিডেন্ট প্রার্থী জিতেছেন।

জর্জিয়ায় গত ২০ বছরের মধ্যে কোনো ডেমোক্রেট সিনেট নির্বাচনে জিততে না পারলেও এ বছর তা ঘুরে দাঁড়ানোর সম্ভাবনা আছে বলেও মনে করছেন পর্যবেক্ষকরা।

পূর্বকোণ/পিআর

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 164 People

সম্পর্কিত পোস্ট