চট্টগ্রাম রবিবার, ০৫ ফেব্রুয়ারী, ২০২৩

সর্বশেষ:

২২ মে, ২০১৯ | ১:৫৩ পূর্বাহ্ণ

আগ্রাসীরা অতীত হয়ে গেছেন, টিকে আছে ইরান : জারিফ

এক টুইটে জাভেদ জারিফ বলেছেন, ব্যাপক অস্ত্র বিক্রির মাধ্যমে বিভিন্ন স্বৈরাচারী কসাইকে নোংরা কূটনীতি এবং যুদ্ধাপরাধের সহযোগিতা করতে নিজের দলকে সুযোগ করে দিয়েছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প।
ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক : ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোহাম্মদ জাভেদ জারিফ বলেছেন, মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের গণহত্যার উসকানিতে কখনও ইরানের সমাপ্তি হবে না।
মঙ্গলবার এক টুইটে তিনি বলেন, ইরান সহগ্র বছর ধরে মাথা সোজা করে দাঁড়িয়ে আছে। এ সময় শত শত আগ্রাসনকারী পৃথিবী থেকে চলে গেছেন। ‘কাজেই ইরানকে কখনও হুমকি দেবেন না, সম্মান করার চেষ্টা করুন- এটিই কাজ দেবে।’
আরেক টুইটে জাভেদ জারিফ বলেন, ব্যাপক অস্ত্র বিক্রির মাধ্যমে বিভিন্ন স্বৈরাচারী কসাইকে নোংরা কূটনীতি এবং যুদ্ধাপরাধের সহযোগিতা করতে নিজের দলকে সুযোগ করে দিয়েছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। ইরানকে ধ্বংস করে দিতে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের হুংকারের জবাবে জাভেদ জারিফ এমন কথা বলেন।
এর আগে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেন, মধ্যপ্রাচ্যে মার্কিন স্বার্থের বিরুদ্ধে ইরান কিছু করতে চাইলে ভয়াবহ শক্তির মুখোমুখি হতে হবে তাদের।
রোববার এক টুইটে যুদ্ধ চাইলে সেটিই ইরানের আনুষ্ঠানিক সমাপ্তি হবে বলে হুশিয়ার করেছেন ট্রাম্প।
একই দিন সৌদি আরবও ইরানকে হুশিয়ার করেছিল। ইরান যুদ্ধ চাইলে তারা সর্বশক্তি দিয়ে জবাব দিতে প্রস্তুত এবং যুদ্ধ এড়ানো ইরানের ওপরই নির্ভর করছে বলে জানিয়েছিল তারা।
গত সপ্তাহে সৌদি তেল স্থাপনায় ড্রোন হামলা ও রোববার বাগদাদের গ্রিন জোনে রকেট নিক্ষেপের প্রতিক্রিয়ায় এসব হুশিয়ারি এলো।
বাগদাদের গ্রিন জোনে নিক্ষিপ্ত রকেটটি মার্কিন দূতাবাসের কাছে বিস্ফোরিত হয়।
ইরাকের রাজধানী বাগদাদের অতি সুরক্ষিত গ্রিন জোনে রোববার একটি রকেট হামলার ঘটনা ঘটে। যেখানে হামলাটি হয়েছে, সেখানে সরকারি ভবন ও মার্কিন মিশনসহ বিভিন্ন দেশের দূতাবাস রয়েছে।

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট