চট্টগ্রাম মঙ্গলবার, ০৭ ফেব্রুয়ারী, ২০২৩

১৬ মে, ২০১৯ | ২:৩৭ পূর্বাহ্ণ

ডা. প্রীতীশ বড়ুয়া

ত্বকের দাগ মেছেতা

ত্বকের দাগ বললেও, মেছেতা আসলে মুখের দাগ হিসাবে বেশি পরিচিত। মেছেতাকে ডাক্তারী ভাষায় মেলাসমা বা সময় সময় ক্লোয়েসমা নামে অভিহিত করা হয়। ২০-৪৫ বছর বয়সী বাদামী চামড়ার মানুষদের মধ্যে এর প্রকোপ বেশী। পূরুষদের তুলনায় মহিলারাই বেশি আক্রান্ত হন। দেখা গেছে প্রতি চার জনে একজন মহিলা এবং প্রতি বিশ জনে একজন পূরুষ এতে ভূগে থাকেন। মুখম-লে এটি বেশি দেখা যায়। তবে কিছু কিছু ক্ষেত্রে গলা, হাত সহ শরীরে সুর্য-রশ্নি লাগে এমন সব জায়গায় হতে পারে। এক বা একাধিক ছোট বড় ছোপ ছোপ দাগ প্রাথমিক ভাবে হালকা বাদামি থাকলেও ধীরে ধীরে কালচে বর্ণ ধারণ করে। ত্বকের গভীরতার উপর নির্ভর করে মেলাসমাকে এপিডারমাল, ডারমাল বা মিশ্রিত- এই তিন ভাগে চিহ্নিত করা হয়।
ত্বকের নীচে মেলানিন নামক এক ধরণের বর্ণ উৎপাদক পদার্থ থাকে। এই মেলানিনের উৎপাদন স্থিতিশীল থাকে বলে আমাদের ত্বকের রঙ সুষম ভাবে বিরাজ করে। কিন্তু ত্বকের কিছু কিছু স্থানে এই উৎপাদন বেড়ে গিয়ে মেছেতার মত দাগ সৃষ্টি করে। মেলানিন উৎপাদন জায়গায় জায়গায় কেন বেড়ে যায় তা পুরাপুরি জানা না গেলেও কিছু অণুঘটককে চিহ্নিত করা হয়েছে। এর মধ্যে রয়েছে, সূর্যালোক, গর্ভাবস্থায় কিংবা জন্মনিয়ন্ত্রন বড়ির কারণে হরমোনের হঠাৎ তারতম্য, হরমোন রিপে¬সমেন্ট থেরাপি, থাইরয়েড রোগ, কিছু ঔষধ ও প্রসাধনী, ইত্যাদি। বংশগত ধারা লক্ষ্য করা গেলেও, এটাকে পুরাপুরি বংশগত রোগ বলা যায় না। মেছেতা প্রতিরোধ কিংবা প্রতিকার কোনটাই শতভাগ ফলদায়ক- তা দাবী করা যায় না। তারপরও মেছেতা প্রতিরোধ এবং প্রতিকারের প্রধান শর্ত হচ্ছে উচ্চ-মাত্রার সানস্ক্রীন দিয়ে ত্বককে সূর্যালোক থেকে রক্ষা রাখা। প্রতিকারক চিকিৎসায় মেছেতা সম্পূর্ণ দূর না হলেও নিয়ন্ত্রনে রাখা যেতে পারে।
অনূঘটক চিহ্নিত করা গেলে অবস্থা অনুযায়ী ব্যবস্থা বা কাউন্সেলিং করা হয়। মেছেতার চিকিৎসায় অনেক রকম মলম থাকলেও দেখা গেছে ক্লিগমেন ফর্মূলা অনুযায়ী তিন ধরণের ঔষধের মিশ্রণে তৈরী একপ্রকার মলম বেশ কার্যকরী ও বিজ্ঞান-সম্মত। যদিও তা মাঝে মাঝে রিয়েকশন করতে পারে। এছাড়া লেজার, ডারমারেশন ইত্যাদি পদ্ধতিও চেষ্টা করা হয়ে থাকে। ত্বকের অবস্থা অনুযায়ী চিকিৎসা পদ্ধতি নির্ধারণ করা হয়।
মনে রাখা দরকার- রেজিস্ট্রার্ড চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়া নিজে নিজে ঔষধ ব্যবহারে মেছেতা না কমে আরো বেড়ে যেতে পারে।

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট