চট্টগ্রাম রবিবার, ১৫ ডিসেম্বর, ২০১৯

৩১ অক্টোবর, ২০১৯ | ৩:০৪ পূর্বাহ্ন

সু স্থ থা কু ন

কাঁচা লবণের বিকল্প

সুস্থ মানুষের দিনে এক চা চামচের কম লবণ খাওয়া উচিত। লবণের মূল উপাদান সোডিয়ামের ঊর্ধ্বসীমা দিনে ২ গ্রামের মধ্যে সীমাবদ্ধ রাখতে পারলে উচ্চ রক্তচাপ, হার্টের অসুখ, স্ট্রোকের ঝুঁকি কমে। এসব অসুখের হাত থেকে মুক্তি পেতে দিনে কম করে ৩৫১০ মিলিগ্রাম পটাশিয়াম খাওয়া দরকার। অনেকেরই মনে প্রশ্ন জাগে, কাঁচা লবণ না খেলে এই সোডিয়াম-পটাশিয়াম মিলবে কোথা থেকে? সোডিয়াম শুধু লবণেই আছে এমন নয়। প্রায় সব পটাশিয়ামসমৃদ্ধ খাবারেই তা পাওয়া যায়। এর ভালো উৎস দুধ এবং আলু। বিশেষজ্ঞদের মতে প্রয়োজনমতো পটাশিয়াম পেতে চাইলে লবণ ও নোনতা খাবার খাওয়া কমিয়ে কম ক্যালোরি বিচারে সুষম খাবার খাওয়া ভালো। এতে সব দিক বজায় থাকবে। সুষম খাবার খেলে শরীরে পটাশিয়ামের ঘাটতি হয় না বলে জানিয়েছেন বিজ্ঞানীরা। রক্তচাপ বশে রাখতে ওষুধ খাওয়া ও অন্যান্য নিয়ম মানার পাশাপাশি পটাশিয়ামসমৃদ্ধ খাবার খেলে ভালো কাজ হয়। যে সব খাবার খেলে কোলেস্টেরল কমে তাতে পটাশিয়াম বেশি থাকে। অর্থাৎ এই জাতীয় খাবার খেলে কোলেস্টেরল বশে রাখা সহজ হয়। হার্টও ভালো থাকে। অনিয়মিত হৃদস্পন্দনের সমস্যায় চিকিৎসার পাশাপাশি পটাশিয়ামসমৃদ্ধ খাবার উপকারী। হাড় ও পেশির স্বাস্থ্যের জন্যও পর্যাপ্ত পটাশিয়াম খাওয়া দরকার।

সোডিয়াম-পটাশিয়ামের পর্যাপ্ত উৎস ডাবের জল। এছাড়াও কিছুটা মেলে পালং শাক, আলু, মিষ্টি আলু, টমেটো, মাশরুম, বিট, মুলো, সয়াবিন, মুগ ডাল, দুধ, দই, নাসপাতি, কলা, আম, জাম, কমলা, পেঁপে, পেস্তা, কিশমিশ, চিংড়ি, মাছ, চিকেন, লাল মাংস ইত্যাদিতে। অন্য শাকসবজি, ফলেও আছে যথেষ্ট পিরমাণে সোডিয়াম-পটাশিয়াম। সচেতনভাবে সুষম খাবার খাওয়ার অভ্যাস থাকলে শরীরে এর অভাব হয় না।

The Post Viewed By: 76 People

সম্পর্কিত পোস্ট