চট্টগ্রাম বুধবার, ৩০ নভেম্বর, ২০২২

সর্বশেষ:

১২ অক্টোবর, ২০২২ | ১২:১৮ অপরাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক

বাত-ব্যথায় ২৬% মানুষ

বাংলাদেশের ২৬ শতাংশ মানুষ কোনো না কোনো ধরনের আর্থ্রাইটিস বা বাত-ব্যথায় ভুগছেন। তাদের মধ্যে ২৪ শতাংশের কর্মক্ষমতা কম। আক্রান্তদের মধ্যে পুরুষের চেয়ে নারীরাই বেশি এ রোগে ভুগছেন। চিকিৎসকরা বলছেন, এক সময়ে বয়স্কদের মধ্যে বাত-ব্যথা রোগের প্রবণতা বেশি থাকলেও এখন যুবকরাও শিকার হচ্ছেন আর্থ্রাইটিসে। তাই আঘাতজনিত ব্যথা ছাড়া অন্যসকল বাত-ব্যাথা হলেই চিকিৎসকের দ্বারস্ত হওয়ার পরামর্শ বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের।

 

এমন প্রেক্ষাপটে আর্থ্রাইটিস সম্পর্কে সচেতনতা সৃষ্টি করতে বিভিন্ন দেশের মতো আজ বুধবার বাংলাদেশেও পালিত হচ্ছে বিশ্ব আথ্র্রাইটিস দিবস। দিবসটি উপলক্ষে চট্টগ্রামসহ সারাদেশে বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে। এরমধ্যে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজসহ চট্টগ্রামের বিভিন্ন সামাজিক সংগঠনের উদ্যেগেও নানান আয়োজন গ্রহণ করা হয়েছে।

 

চিকিৎসকরা বলছেন, আর্থ্রাইটিস তথা বাতরোগ হলো এক বা একাধিক জয়েন্টের ফোলা ও ব্যথা। এর প্রধান লক্ষণ হল জয়েন্টে ব্যথা এবং তা শক্ত হওয়া। সাধারণত বয়সের সঙ্গে সঙ্গে এর প্রকোপ বাড়ে। আর্থ্রাইটিসের সবচেয়ে সাধারণ ধরন হলো অস্টিও-আর্থ্রাইটিস এবং রিউমাটয়েড আর্থ্রাইটিস। এছাড়াও গাউট, সোরিয়াটিক আর্থ্রাইটিস, এনকাইলোজিং স্পন্ডাইলাইটিস, রি-একটিভ-আর্থ্রাইটিস, এন্টারোপ্যাথিক-আর্থ্রাইটিসসহ শতাধিক বাতরোগ আছে।

 

কুমিল্লা মেডিকেল কলেজের রিউমাটোলজি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ডা. নাসিম রেজা চৌধুরী বলেন, ‘আথ্রাইটিস এমন একটি রোগ, যা যেকোনো বয়সীদের মধ্যে হতে পারে। সুতরাং এ নিয়ে কোন ধরণের অবহেলা করা উচিত নয়। হাঁটু ও কোমরের ব্যাথা নিয়েই সবচেয়ে বেশি রোগীরা চিকিৎসকের দ্বারস্থ হয়ে থাকেন। যদিও অনেক ক্ষেত্রে রোগী ভুল চিকিৎসারও শিকার হন। তাই আঘাতজনিত ব্যাথা ছাড়া অন্য সব বাত-ব্যাথার রোগীর রিউমাটোলজি বিশেষজ্ঞ বা নিকটস্থ মেডিসিন বিশেষজ্ঞের পরামর্শ গ্রহণ করা জরুরি।’

পূর্বকোণ/পিআর 

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট