চট্টগ্রাম সোমবার, ১৮ অক্টোবর, ২০২১

সর্বশেষ:

৫ আগস্ট, ২০২১ | ৮:২২ অপরাহ্ণ

অনলাইন ডেস্ক

দ্রুত ওজন কমানোর চেষ্টা অবৈজ্ঞানিক

সুষম খাবার (ব্যালেন্সড ডায়েট) খান। সুষম খাবার হলো সেটাই  যেখানে শর্করা, আমিষ, স্নেহ এই তিনটি প্রধান, আবারও বলছি প্রধান খাদ্যোপাদান এর পাশাপাশি ভিটামিন, মিনারেল ও পানি সুষম মাত্রায় উপস্থিত থাকে। অতিরিক্ত ওজন ঝরাতে খাবার থেকে মোট ক্যালরি কমিয়ে দিন। কিন্তু রেশিও বা অনুপাত ঠিক রাখুন।

বিশেষ প্রয়োজনে রেজিস্টার্ড চিকিৎসক বা পুষ্টিবিদ আপনার বয়স, পেশা, জেন্ডার, শরীরে বিদ্যমান অসুখ, কি ওষুধ খাচ্ছেন ইত্যাদি  বিবেচনায় রেখে অনুপাত সামান্য কমবেশি করতে পারেন। কিন্তু কোন প্রয়োজনীয় খাদ্যোপাদানকে জিরো বা জিরোর কাছাকাছি করে দেবেন না।

ওজন কমাতে খাবার নিয়ন্ত্রণের পাশাপাশি শারীরিক পরিশ্রম বা শরীরচর্চার উপর গুরুত্ব দিন। যে কাজ করলে শরীরে ঘাম ঝরে ও হৃদস্পন্দন বেড়ে যায় সেটিই শারীরিক পরিশ্রম। শারীরিক পরিশ্রম ছাড়া ওজন কমানোর প্রলোভনকে এড়িয়ে চলতে শিখুন।

দ্রুত ওজন কমানোর চেষ্টা একটি অবৈজ্ঞানিক, ক্ষতিকর, ঝুঁকিপূর্ণ চেষ্টা। এটিকে দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনা হিসেবে গ্রহণ না করাই উত্তম। চিকিৎসা বিজ্ঞানের ভাষায় (মেডিসিনের টেক্সট বুক অনুযায়ী) মাসে দুই কেজি ওজন কমানো হলো আদর্শ পরিকল্পনা। এর সামান্য কম বেশি হতে পারে। কিন্তু সপ্তাহে দুই কেজি কমলে আপনি ধরে নেবেন আপনি সঠিক পথে নেই।

দ্রুত ওজন কমালে হৃদরোগ, হরমোনের ভারসাম্যহীনতা, কিডনির সমস্যা, মানসিক সমস্যা ইত্যাদি হতে পারে। অতিরিক্ত সবকিছুই খারাপ। এমনকি দরকারি জিনিসও অতিরিক্ত খারাপ।

পূর্বকোণ/সাফা

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 319 People

সম্পর্কিত পোস্ট