চট্টগ্রাম রবিবার, ১১ এপ্রিল, ২০২১

সর্বশেষ:

৬ এপ্রিল, ২০২১ | ১:৩২ অপরাহ্ণ

ইমরান বিন ছবুর

বিদ্যানন্দ করোনা হাসপাতাল ফের চালু রোজার শুরুতেই

রমজানের শুরুতেই পুনরায় চালু হচ্ছে বিদ্যানন্দ হাসপাতাল। দেশে ফের করোনার প্রকোপ বৃদ্ধি পাওয়ায় আগামী ১৪ এপ্রিল হাসপাতাল চালুর উদ্যোগ নিয়েছে বিদ্যানন্দ। নগরীর পাহাড়তলীর সাগরিকা এলাকায় প্রিমিয়ার বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে ৭০ শয্যাবিশিষ্ট এ হাসপাতাল তৈরি হবে বলে জানান বিদ্যানন্দ হাসপাতালের সমন্বয়ক মো. জামাল উদ্দিন। চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের (সিএমপি) কারিগরি ও নিরাপত্তা সহযোগিতায় এবং প্রিমিয়ার বিশ্ববিদ্যালয়ের আবাসন সহযোগিতায় এ হাসপাতাল নির্মাণ করা হবে জানান সংশ্লিষ্টরা।

গতবছর মার্চের পরে দেশে করোনার প্রকোপ বৃদ্ধি পায়। একদিকে হাসপাতালের একটি বেডের জন্য চারিদিকে হাহাকার চলছিল। অন্যদিকে অক্সিজেনের অভাবে এম্বুলেন্সেই মারা যায় করোনা রোগী। চারিদিকে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে। এমন আতঙ্ক ও হাহাকারের মধ্যে এগিয়ে আসে বিদ্যানন্দ হাসপাতাল। চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের (সিএমপি) সহযোগিতায় করোনার রোগীদের জন্য পতেঙ্গায় হাসপাতাল নির্মাণ করে বিদ্যানন্দ- যেখানে অর্থের যোগান দিয়েছেন সাধারণ মানুষ।

এ সম্পর্কে জানতে চাইলে সিএমপি কমিশনার সালেহ মোহাম্মদ তানভীর বলেন, দেশে করোনা রোগীর সংখ্যা বৃদ্ধি পাওয়ায় হাসপাতাল পুনরায় চালুর উদ্যোগ নিয়েছে বিদ্যানন্দ। এ নিয়ে আমাদের সাথে বিদ্যানন্দের একটি মিটিংও হয়েছে। হাসপাতাল তৈরির ব্যাপারে সিএমপি’র পক্ষ থেকে সর্বাত্মক সহযোগিতা দেয়া হবে বলে আমরা জানিয়েছি।  বিদ্যানন্দ হাসপাতালের সমন্বয়ক মো. জামাল উদ্দিন বলেন, দেশের করোনা পরিস্থিতি আবার খারাপের দিকে যাচ্ছে। সরকারের পাশাপাশি জনগণের সহযোগিতা নিয়ে আমরা পুনরায় বিদ্যানন্দ হাসপাতাল চালু করার উদ্যোগ নিয়েছি। হাসপাতালের কারিগরি ও নিরাপত্তা দিয়ে সহযোগিতা করবে সিএমপি এবং আবাসন সহযোগিতা করবে প্রিমিয়ার বিশ্ববিদ্যালয়। তিনি আরো বলেন, আমাদের ডাক্তাররা অভিজ্ঞ। সেটা আমাদের জন্য প্লাস পয়েন্ট। আগামী ১৪ এপ্রিল ও ১ রমজানে এ হাসপাতাল চালু করার জন্য প্রস্তুতি নিয়েছি। এখানে একত্রে ৭০ জন কোভিড রোগী চিকিৎসা নিতে পারবে।

অর্থের ব্যাপারে জানতে চাইলে তিনি বলেন, বিদ্যানন্দ কখনো ফান্ড নিয়ে ভাবে না। সাধারণ জনগণই আমাদের ফান্ডের ব্যবস্থা করবেন। পুনরায় হাসপাতাল করার ঘোষণা দেয়ার পর থেকেই ফান্ড দেয়ার জন্য বিভিন্ন মানুষ আমাদের সাথে যোগাযোগ করছে।

অন্যদিকে আজ থেকে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের (চসিক) ৫০ শয্যার আইসোলেশন সেন্টার চালু হচ্ছে। নগরীর লালদিঘির দক্ষিণ পাড়ে চসিক লাইব্রেরি ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ভবনে এ আইসোলেশন সেন্টার চালু করা হচ্ছে।

এছাড়া করোনায় আক্রান্তদের চিকিৎসা সেবা দেয়ার জন্য চট্টগ্রাম ফিল্ড হাসপাতাল ও আইসোলেশন সেন্টার পুনরায় চালুর উদ্যোগ নিয়েছে স্বাস্থ্য বিভাগ। গতকাল সোমবার চট্টগ্রাম বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালক ডা. হাসান শাহরিয়ার কবির চট্টগ্রাম ফিল্ড হাসপাতাল, সিটি কর্পোরেশন আইসোলেশন সেন্টার এবং হলিক্রিসেন্ট হাসপাতাল পরিদর্শন করেন।

একইভাবে হালিশহরে বন্ধ হয়ে যাওয়া আইসোলেশন সেন্টারটি পুনরায় চালুর জন্য স্বাস্থ্য দপ্তরের পরিচালক থেকে অনুমোদন নেয়া হয়েছে বলে জানান নগর ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও হালিশহর করোনা আইসোলেশন সেন্টারের প্রধান সমন্বয়ক নূরুল আজিম রনি। পরিস্থিতি বিবেচনা করে নতুন নামে এটি চালু করার পরিকল্পনা রয়েছে বলে জানান তিনি।

পূর্বকোণ/এএ

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 339 People

সম্পর্কিত পোস্ট