চট্টগ্রাম সোমবার, ০১ মার্চ, ২০২১

সর্বশেষ:

৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ | ১২:৫৭ অপরাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রাথমিক পর্যায়ে শনাক্ত হলেই মিলবে ক্যান্সার থেকে মুক্তি

আজ বিশ্ব ক্যান্সার দিবস। বিশ্বের অন্যান্য দেশের মতো বাংলাদেশেও আজ পালিত হচ্ছে দিবসটি। অন্যান্য বারের মত এবারও বিশ্ব ক্যান্সার দিবসের প্রতিপাদ্যের বিষয় হচ্ছে ‘আমরা পারি, আমি পারি’। তবে বাংলাদেশে এবার দিবসটি প্রতিপাদ্য নির্ধারণ করা হয়েছে ‘আমি আছি, থাকবো ক্যান্সারের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে’। টানা তিন বছরের বেশি সময় একই প্রতিপাদ্য নিয়ে সারা বিশ্বে দিবসটি পালন করে আসছে। এবারও তার ব্যতিক্রম হয়নি। এ প্রতিপাদ্যের মূল উদ্দেশ্য হচ্ছে ক্যান্সারে আক্রান্ত হওয়ার শুরুর দিকেই যদি রোগটি শনাক্ত করা যায় তবে এ রোগ থেকে মুক্তি লাভ করা সম্ভব ও রোগ নিয়ে স্বাভাবিক জীবনযাপন করা সম্ভব। তাই এরজন্য প্রয়োজন সচেতনতা বৃদ্ধি।

গবেষণায় দেখা গেছে, ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়ে প্রতি বছর প্রায় ৯০ লাখ মানুষের মৃত্যু হয়। তাদের মধ্যে বহু মৃত্যুর ঘটনাই ঘটে রোগটিকে শুরুর দিকে শনাক্ত করতে না পারার কারণে। বাংলাদেশসহ সমগ্র বিশ্বে ক্যান্সারে আক্রান্তের সংখ্যা উদ্বেগজনক হারে বাড়ছে।

ইন্টারন্যাশনাল এজেন্সি ফর রিসার্চ অন ক্যান্সার (আইএআরসি) এর তথ্য মতে, বাংলাদেশে প্রতিবছর এক লাখ ২২ হাজার মানুষ ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়। সারা বিশ্বে প্রতি ৯ জনে ১ জন ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়। ফলে ক্যান্সার আজ অন্যতম মরণব্যাধি। চট্টগ্রামেও এর ব্যতিক্রম নয়। চট্টগ্রামে সরকারিভাবে একমাত্র ক্যান্সার রোগীর সেবা দেওয়া হয় চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে।

নারীদের বেলায় যে তিন ধরনের ক্যান্সারের কথা বেশি শোনা যায়, সেগুলো হল- জরায়ুর মুখে ক্যান্সার বা সার্ভিক্যাল ক্যান্সার, ডিম্বাশয়ের ক্যান্সার বা ওভারিয়ান ক্যান্সার ও স্তন ক্যান্সার। গবেষণায় দেখা গেছে, বাংলাদেশের নারীরা জরায়ুমুখের ক্যান্সার ও স্তন ক্যান্সারের কারণে বেশি মারা যাচ্ছে। অথচ উন্নত বিশ্বে এটি শূন্যের ঘরে নামিয়ে আনা সম্ভব হয়েছে। কারণ এই রোগ পুরোপুরি প্রতিরোগযোগ্য। পূর্ব-লক্ষণ যাচাইয়ের জন্য বাংলাদেশেও বেশ কিছু পদ্ধতি রয়েছে এবং ভিআইএ নামে সহজ একটি পরীক্ষা জাতীয়ভাবে পরিচালিত হচ্ছে।

পূর্বকোণ/এএ

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 206 People

সম্পর্কিত পোস্ট