চট্টগ্রাম শনিবার, ০৬ মার্চ, ২০২১

সর্বশেষ:

৩১ অক্টোবর, ২০২০ | ৯:০৫ অপরাহ্ণ

পূর্বকোণ ডেস্ক

‘করোনা থেকে সুস্থ হওয়া ব্যক্তিদের এন্টিবডি কমলেও উদ্বেগের কিছু নেই’

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার পর অ্যান্টিবডি কারও শরীর থেকে কমে গেলেও পুনরায় আক্রান্ত হওয়া থেকে সুরক্ষা দিতে পারে। বিশেষজ্ঞরা বলছেন,  ভ্যাকসিন পাওয়ার আগ পর্যন্ত একজন কোভিড-১৯ রোগী সুস্থ হওয়ার পর কতদিন পর্যন্ত সুরক্ষিত থাকতে পারেন তা জানা বেশ জরুরি। যুক্তরাষ্ট্রের শীর্ষ সংক্রামক রোগ বিশেষজ্ঞ ড. অ্যান্থনি ফাউচিও ওই মতের সঙ্গে একমত পোষণ করে বলেন, অ্যান্টিবডি কমে গেলেই প্রতিরোধ ক্ষমতা কমে যায় এটা ভাবার প্রয়োজন নেই।

নিউ ইয়র্কের বিজ্ঞানীদের জার্নাল সাইন্সে প্রকাশ করা এক গবেষণায় বলা হয়েছে, প্রতিরোধ সিস্টেমে তৈরি হওয়া কোভিড-১৯ অ্যান্টিবডি প্রায় পাঁচ মাস পর্যন্ত স্থিতিশীল থাকতে পারে। এর দুই দিন আগে ইংল্যান্ডের অংশগ্রহণকারীদের ওপর পরিচালিত অন্য এক গবেষণায় বলা হয়, সুস্থ হওয়া রোগীদের অ্যান্টিবডির মাত্রা দ্রুত কমছে। পুনরায় পর্যালোচনার অপেক্ষায় থাকা ওই গবেষণায় বলা হয় তিন মাসের ব্যবধানে অ্যান্ডিবডির মাত্রা ২৬ শতাংশ পর্যন্ত কমে গেছে। বেশিরভাগ বিশেষজ্ঞই একমত পোষণ করেছেন যে, সময় গড়ানোর সঙ্গে সঙ্গে অ্যান্টিবডির মাত্রা কমে যাওয়া প্রত্যাশিত আর এই কমে যাওয়া সামগ্রিকভাবে উদ্বেগজনক নয়।

ইতোপূর্বের এক গবেষণায় জানা গিয়েছিল যে উপসর্গযুক্ত রোগীরা সুস্থ হলে তাদের দেহে কোভিড-১৯ প্রতিরোধী প্রাকৃতিক প্রতিরোধ ব্যবস্থা গড়ে ওঠে। তবে উপসর্গহীন করোনামুক্তদের রোগ প্রতিরোধ ব্যবস্থা সম্পর্কে জানতে সাম্প্রতিক গবেষণাটি উল্লেখযোগ্য এক পদক্ষেপ। এর ফলে দেখা যাচ্ছে, প্রতিরোধ ব্যবস্থা তাদের দেহে জন্মালেও তার স্থায়িত্ব খুবই কম।

পূর্বকোণ / আরআর

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 139 People

সম্পর্কিত পোস্ট