চট্টগ্রাম শুক্রবার, ০৫ মার্চ, ২০২১

সর্বশেষ:

৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ | ১:৩৩ অপরাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক 

বন্দরের জিসিবি: মার্চ থেকে নতুন ৬ বার্থ অপারেটর

আগামী মার্চ থেকে চট্টগ্রাম বন্দরের জেনারেল কার্গো বার্থের (জিসিবি) ৬টি কনটেইনার জেটিতে কাজ শুরু করবে নতুন ৬ বার্থ অপারেটর। ইতিপূর্বে বার্থ অপারেটর নিয়োগের দরপত্র কার্যক্রমও শুরু করেছে চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষ। কাল (৭ ফেব্রুয়ারি) শেষ হচ্ছে দরপত্র বিক্রয় কার্যক্রম। এরপর দরপত্র যাচাই বাছাই কার্যক্রম শেষ করে ফেব্রুয়ারির মধ্যেই ৬ বার্থ অপারেটর নিয়োগ দেওয়ার কাজ শেষ করবে বন্দর। যাতে মার্চ থেকেই তারা কাজ শুরু করতে পারে।

এবিষয়ে চট্টগ্রাম বন্দরের পরিবহন বিভাগ সূত্র জানায়, চট্টগ্রাম ও মংলা বন্দরে কাজ করছে এমন সব বার্থ অপারেটরই চট্টগ্রাম বন্দরের জিসিবিতে কাজ করার জন্য দরপত্র সংগ্রহ করতে পারবে। একাজের জন্য যেই যোগ্যতা চাওয়া হয়েছে তা মোটামুটি সব বার্থ অপারেটরদেরই আছে। আর বেশি সংখ্যক বার্থ অপারেটর দরপত্রে অংশগ্রহণ নিশ্চিত করতে তাদের যোগ্যতাও শিথিল করা হয়েছে।

জানা যায়, জিসিবি’র ৬, ৯, ১০, ১১, ১২ এবং ১৩ নম্বর কন্টেইনার বার্থে ৫ বছর কন্টেইনার হ্যান্ডলিংয়ের জন্য নিয়োগ দেওয়া হবে নতুন ৬ বার্থ অপারেটর। যেসব প্রতিষ্ঠান একাজ করতে ইচ্ছুক তাদের একটি প্রতিষ্ঠান সর্বোচ্চ দু’টি বার্থের দরপত্রে অংশগ্রহণ করতে পারবে। অর্থাৎ এই শর্তের কারণে এক বার্থ অপারেটর দুটির বেশি বার্থে কাজ করার সুযোগ পাচ্ছে না।

এছাড়া দরপত্রে অংশগ্রহণকারীদের প্রস্তাবের প্রেক্ষিতে কিছু শর্ত শিথিল করা হয়েছে। অপারেটর কর্তৃক ৩০ ইউনিট ট্রাক্টর ট্রেইলার সরবরাহের শর্ত ছিল। যা পরিবর্তন করে  ২০টি করা হয়েছে। এছাড়াও টেন্ডার সিকিউরিটির পরিমাণ ১ কোটি টাকা থেকে কমিয়ে ৮০ লাখ টাকা করা হয়েছে। দরপত্রের অন্যতম শর্ত হলো গত ১০ বছরের যে কোন ২ বছরে কমপক্ষে এক লাখ টিইউস কন্টেইনার হ্যান্ডলিং-এর অভিজ্ঞতা থাকতে হবে।

বার্থ অপারেটর নিয়োগের বিষয়ে বার্থ অপারেটরস, শিপ হ্যান্ডলিং অপারেটরস এন্ড টার্মিনাল অপারেটরস ওনার্স এসোসিয়েশনের চেয়ারম্যান ফজলে ইকরাম চৌধুরী পূর্বকোণকে বলেন, বার্থ অপারেটর নিয়োগে সুর্দিষ্ট পিপিআর রয়েছে। কারণ চট্টগ্রাম বন্দর খুব স্পর্শকাতর জায়গা। এখানে অভিজ্ঞ প্রতিষ্ঠান দিয়েই কাজ করতে হয়। অন্যথায় আমদানি-রপ্তানির বিপুল পরিমাণ পণ্য হ্যান্ডেলিং হুমকির মুখে পরবে। এজন্য বার্থ অপারেটর নিয়োগে অভিজ্ঞ প্রতিষ্ঠান খুঁজে থাকে চট্টগ্রাম বন্দর। কারণ বন্দর চায় তার কনটেইনার হ্যান্ডেলিং গ্রোথ প্রতি বছর পজিটিভ থাকুক।

পূর্বকোণ/এএ

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 533 People