চট্টগ্রাম সোমবার, ০১ মার্চ, ২০২১

সর্বশেষ:

২৫ জুলাই, ২০১৯ | ১:১১ পূর্বাহ্ণ

নাসরিন আকতার

উদ্ভিদের বৃদ্ধিতে বাধার সৃষ্টি করছে সিগারেটের উচ্ছিষ্ট

ফেলে দেয়া সিগারেটের উচ্ছিষ্ট উদ্ভিদের
বৃদ্ধিতে বাধার কারণ হতে পারে, এমনটাই বলছে একটি গবেষণার ফল।

অ্যাংগলিয়া রাস্কিন ইউনিভার্সিটি নেতৃত্বাধীন একটি গবেষণায় দেখা গেছে যে, মাটিতে সিগারেটের গোঁড়ার উপস্থিতির কারণে সে মাটিতে বীজ থেকে অঙ্কুর হওয়ার সম্ভাবনা কমেছে শতকরা ২৭ থেকে ২৮ ভাগ।
ঘাসের ক্ষেত্রে অঙ্কুরোদগমের সম্ভাবনা হ্রাস পেয়েছে ১০% এবং দৈর্ঘ্যরে পরিমাণ হ্রাস পেয়েছে ১৩%। গবেষণায় বলা হচ্ছে যে, প্রতি বছর অন্তত পক্ষে ৪.৫ ট্রিলিয়ন সিগারেট বাট পুরো পৃথিবীব্যাপী ছড়িয়ে পড়ছে, যা কিনা উদ্ভিদের জন্যে সবচেয়ে বড় আকারের প্লাস্টিক দূষণ সৃষ্টি করে।
বেশিরভাগ সিগারেটের গোঁড়া বা বাটে থাকে একটি সেলুলোজ এসিসেট ফাইবারের তৈরি ফিল্টার, যা এক ধরনের বায়োপ্লাস্টিক।
একইসাথে গবেষকরা দেখেছেন যে, অব্যবহৃত সিগারেটের ফিল্টারও একইভাবে পরিত্যক্ত ফিল্টারের মতোই উদ্ভিদের বৃদ্ধির ওপর প্রভাব ফেলে। তামাকের বিষক্রিয়া ঘটুক আর না ঘটুক, ফিল্টারটিই উদ্ভিদের জন্যে ক্ষতির কারণ হয়ে দাঁড়ায়।
ইকোটক্সিকোলজি এন্ড এনভায়রনমেন্টাল সেফটি জার্নালে প্রকাশিত গবেষণায় দেখা গেছে যে, গবেষকরা ক্যামব্রিজ শহরের আশেপাশে নমুনা সংগ্রহ করে দেখেছেন সেখানে প্রতি বর্গ মিটারে অন্তত ১২৮টি সিগারেটের গোঁড়া পাওয়া গেছে। প্রধান গবেষক ড্যানিয়েল গ্রিন বলেন, যে সমাজে সিগারেটের অবশিষ্টাংশ যত্রতত্র ছুড়ে ফেলার সংস্কৃতি রয়েছে সেসব স্থানে পরিবেশের গুরুতর ক্ষতির আশঙ্কা রয়েছে। সিনিয়র জীববিজ্ঞানী হিসেবে ড. গ্রিন বলেন, “আমাদের গবেষণার প্রধান বিষয় ছিল উদ্ভিদের ওপর সিগারেটে গোঁড়ার কি প্রভাব সেটি দেখা।” (আগামী সংখ্যায় সমাপ্য)
[সূত্র : ডয়চে ভেলে]

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 281 People

সম্পর্কিত পোস্ট