চট্টগ্রাম রবিবার, ১৫ ডিসেম্বর, ২০১৯

১৭ নভেম্বর, ২০১৯ | ২:৪৪ পূর্বাহ্ন

নিজেকে তৈরি করতে শুটিং থেকে দূরে ছিলাম: শাকিব

গেল বৃহস্পতিবার রাতে আবুধাবীতে ক্রিকেট লিগ টি-১০-এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে মঞ্চ মাতিয়েছেন ঢাকাই ছবির শীর্ষনায়ক শাকিব খান। সেখানে তাঁর পরিবেশনা ছিল মুগ্ধ করার মত।

বলিউড বাদশা শাহরুখ খানের প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান ‘রেড চিলিজ এন্টারটেইনমেন্ট’র আমন্ত্রণে আবুধাবীতে পারফর্ম করেন শাকিব। একটি গণমাধ্যমকে তিনি জানান, চমৎকার এই আয়োজনে বাঙালি দর্শকদের পাশাপাশি বিদেশি দর্শকের উচ্ছ্বাস ও উন্মাদনা ছিল চোখে পড়ার মতো। দেশের বাইরে এই ধরনের আয়োজনে অংশ নেওয়ার ব্যাপারটি বেশ ভালো লাগালো।

এদিকে রাষ্ট্রীয় পর্যায়ে চলচ্চিত্র অঙ্গনের সবচেয়ে বড় পুরস্কার ‘জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার’ এবারও সেরা অভিনয়শিল্পীর পুরস্কার পেলেন শাকিব। সত্তা ছবির মধ্য দিয়ে নিজের ঝুলিতে অর্জন হিসেবে যোগ হলো চারটি পুরস্কার। এ নিয়ে তিনি বলেন,পুরস্কার কাজ করার অনুপ্রেরণা বাড়ায়। অভিনয়শিল্পের একজন কর্মী হিসেবে রাষ্ট্রের সর্বোচ্চ পুরস্কার অর্জন করতে পারাটা নিঃসন্দেহে অনেক বেশি গৌরবের। এটি আমার জন্য অনেক বড় প্রাপ্তি।
চলতি বছরে অন্যান্য বছরের তুলনায় ছবি মুক্তির সংখ্যা অনেক কম। নির্মাণ সংখ্যা আশংকাজনক হারে কমে গিয়েছে। চলচ্চিত্রের আঠারো সংগঠন থেকে শুরু করে অনেকেই অনেক কথা বলে থাকেন কিন্তু তাদের কথার মত করে আর সেই ছবি নির্মিত হয় না। সেদিক থেকে সিনেমা নির্মাণের বিষয়টা মুখ থেকে গড়িয়ে আর ক্যামেরা পর্যন্ত আসে না।

চলচ্চিত্রের সঙ্গে জড়িত সবাইকে বিষয়টা নিয়ে ভাবতে হবে এমন কথা জানিয়ে শাকিব বলেন, চলচ্চিত্রের সঙ্গে যুক্ত একটা অংশ এসব না ভেবে এই জায়গাকে পুঁজি করে নোংরা রাজনীতি করছে। অঙ্গনটাকে আরও অস্থির করে রাখছে। চলচ্চিত্রের শুটিংয়ের জন্য বরাদ্দ করা এফডিসির অবস্থা তো আরও ভয়াবহ। আগে যেখানে ছবির শুটিং জমজমাট থাকত, এখন তা হয় না। চলচ্চিত্রসংশ্লিষ্ট সমিতির কেউ কেউ এফডিসিকে রাজনীতির ময়দান বানিয়ে ফেলছেন। শিল্পী–প্রযোজক–পরিচালক ও কলাকুশলীতে বিভাজনও তৈরি হয়ে আছে। আমার কথা হচ্ছে, এফডিসিতে কেন রাজনীতি? রাজনীতি করার ইচ্ছা থাকলে শিল্প–সংস্কৃতির এই অঙ্গন ছেড়ে অন্য কোথাও যান। এফডিসি হলো সংস্কৃতিচর্চার জায়গা। এখানে নাচ, আবৃত্তি, গান, অভিনয় এসবের চর্চা হবে।

অনেকদিন ধরে শুটিংয়ে দেখা না গেলেও দেশে ফিরে শিগগিরই শুটিংয়ে অংশ নেবেন শাকিব। দেশে ফিরে পরিচালকের সঙ্গে বসে আলোচনা করে চলতি মাসের শেষ দিকেই ‘বীর’ ছবির শুটিং করতে চান তিনি।

তিনি জানান, বীর ছবিতে পরিচালক আমাকে একটু নতুন রূপে উপস্থাপন করতে চান। নিজেকে সেভাবেই নতুন করে তৈরি করছি। সে জন্যই বেশ কিছুদিন শুটিং থেকে দূরে ছিলাম। একদম কাছের কয়েকজন ছাড়া কারও সঙ্গে দেখাও করিনি। নিয়মিত জিমে সময় দিয়েছি। আর প্রচুর সিনেমা দেখেছি। নতুন কয়েকটি সিনেমার ব্যাপারে ভাবনাও অনেক দূর এগিয়ে নিয়েছি। এসব নিয়ে আপাতত কিছুই বলতে চাই না। সময়মতো সবাই দেখতে পাবেন।

The Post Viewed By: 39 People

সম্পর্কিত পোস্ট