চট্টগ্রাম সোমবার, ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৯

সর্বশেষ:

১৮ আগস্ট, ২০১৯ | ১:১৩ এএম

স্মরণে-শ্রদ্ধায় আইয়ুব বাচ্চু

রুপালি গিটার ফেলে আইয়ুব বাচ্চু এখন না ফেরার দেশে। বাংলা সঙ্গীতাঙ্গনের এই কিংবদন্তির মাত্র ৫৬ বছর বয়সে জীবনাবসান হয়। গত শুক্রবার ‘গিটারের জাদুকর’র ৫৭ জন্মদিন। তাকে ছাড়াও এবারই প্রথম তার জন্মদিন উদযাপন করবে পরিবার ও ভক্ত-অনুসারীরা। দীর্ঘদিনের হৃদযন্ত্রের ব্যথাটা আর সহ্য করতে না পেরে ২০১৮ সালের ১৮ অক্টোবর সকালে অগণিত ভক্তদের কাঁদিয়ে পৃথিবী থেকে বিদায় নিয়েছেন এবি। সবার পছন্দের এই মানুষটিকে হারানোর শোক এখনো কাটিয়ে উঠতে পারেনি সঙ্গীতাঙ্গন।
১৯৬২ সালের ১৬ আগস্ট চট্টগ্রামের এক সম্ভ্রান্ত পরিবারে জন্ম আইয়ুব বাচ্চুর। মৃত্যুর পর সেই চট্টগ্রামেই তাকে চিরশায়িত করা হয়েছে। কলেজে জীবনে বন্ধুদের নিয়ে ‘গোল্ডেন বয়েজ’ নামে একটা ব্যান্ডদল গড়ে তোলেন আইয়ুব বাচ্চু, পরে অবশ্য এর নাম পাল্টে রাখা হয় ‘আগলি বয়েজ’। বিয়েবাড়ি, জন্মদিন আর ছোটখাটো নানা অনুষ্ঠানে তাদের এই ব্যান্ডদল গান করতো। বন্ধুরা যে যার মতো একেক দিকে ছড়িয়ে পড়লেও আইয়ুব বাচ্চু ব্যান্ডদল ‘ফিলিংস’র সঙ্গে যুক্ত হয়ে যান। এরপর ১৯৮০ সালে তিনি যোগ দেন ‘সোলস’ ব্যান্ডে। এই ব্যান্ডের লিডগিটার বাজানোর দায়িত্বে ছিলেন টানা ১০ বছর। ১৯৯১ সালের ৫ এপ্রিল গড়ে তোলেন নতুন ব্যান্ড ‘এলআরবি’। বাংলা ব্যান্ড জগতের সবচেয়ে জনপ্রিয় ও সম্মানিত ব্যক্তিত্বদের একজন আইয়ুব বাচ্চু মঞ্চ পারফরম্যান্সে ছিলেন অপ্রতিদ্বন্দ্বী। শ্রোতা-ভক্তদের কাছে ‘এবি’ নামে পরিচিত এই গুণীশিল্পীর ডাকনাম রবিন।

The Post Viewed By: 86 People

সম্পর্কিত পোস্ট