চট্টগ্রাম মঙ্গলবার, ১০ ডিসেম্বর, ২০১৯

২১ অক্টোবর, ২০১৯ | ৪:৩০ অপরাহ্ন

অনলাইন ডেস্ক

মালয়েশিয়ায় শুরু হচ্ছে ‘প্রবাসী গাও জীবনের গান’

প্রবাসী বাংলাদেশিদের নিয়ে মালয়েশিয়ায় শুরু হচ্ছে ‘এমএম লাইভ-সিঙ্গারস অব লাইফ’ গানের প্রতিযোগিতা। কুয়ালালামপুর হোটেল ইন্টার কন্টিনেন্টালে এমএম লাইভের কো-ফাউন্ডার ও প্রধান নির্বাহী জাফর ফিরোজ এ উপলক্ষে রবিবার মালয়েশিয়ার স্থানীয় সময় বেলা ২টায়  সংবাদ সম্মেলন করেছেন।

এমএম লাইভের অফিসার এডমিন ক্রিতানা এ সময় তার সঙ্গে ছিলেন । সংবাদ সম্মেলনে আয়োজকরা বলেন, ‘প্রবাসী গাও জীবনের গান’ স্লোগানে মালয়েশিয়া প্রবাসী ছাড়াও এই প্রতিযোগিতায় সিঙ্গাপুর, ব্রুনাই, ইন্দোনেশিয়া এবং থাইল্যান্ডের প্রবাসী বাংলাদেশিরা অংশগ্রহণ করতে পারবে।

এই প্রতিযোগিতার লক্ষ্য শুধু প্রতিভার সন্ধান নয় উল্লেখ করে আয়োজকরা বলেন, আমাদের লক্ষ্য হচ্ছে এই প্রতিযোগিতার মাধ্যমে মালয় এবং বাঙালি সংস্কৃতির মাঝে একটি ভালোবাসার বন্ধন তৈরি করা। সেই সাথে বাঙালি সুরকে বিশ্ব দরবারে ছড়িয়ে দেয়া। আয়োজকরা আশা প্রকাশ করেন গ্র্যান্ড ফিনালেতে মালয়েশিয়ান শিল্পীদের সাথে কয়েকটি দেশের শিল্পীরাও বাংলা গান পরিবেশন করবে।

প্রবাসে এই মহৎ কর্মযজ্ঞ একার পক্ষে সম্ভব নয়। আয়োজকরা মালয়েশিয়া প্রবাসী বাংলাদেশিদের অভিভাবক বাংলাদেশ হাইকমিশন, বাংলাদেশ কমিউনিটি, মালয়েশিয়া ও বাংলাদেশের প্রতিষ্ঠিত ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠান এবং সকল প্রবাসীদের নিয়ে এই কাজটি সুন্দরভাবে সম্পন্ন করতে চান। সংস্কৃতির আদান-প্রদানের মাধ্যমে দুই দেশের মাঝে বন্ধনকে আরও দৃঢ় করতে চান।

এমএম লাইভ সিঙ্গারস অফ লাইফ-২০২০ এর অনলাইন অডিশন রাউন্ড শুরু হয়েছে ২০ অক্টোবর থেকে। এএম লাইভ এপসে অডিশন নামে একটি অপশন দেয়া আছে। প্রতিযোগীরা মোবাইলে গানের ভিডিও ধারণ করে আপলোড করবে।

সেখান থেকে ১০০ জনকে বাছাই করে দর্শকদের ভোটের জন্য এমএম লাইভ এপসে সবার জন্য ভিডিওটি উন্মুক্ত করা হবে। দর্শকদের ভোট এবং বিজ্ঞ বিচারক মণ্ডলীর রায়ে সেখান থেকে ৫০ জনকে স্টুডিও রাউন্ডের জন্য বাছাই করা হবে। স্টুডিও রাউন্ডে থাকবে বাংলা চলচ্চিত্রের চার মহানায়ক সালমান শাহ, রাজ রাজ্জাক, ফারুক এবং ইলিয়াস কাঞ্চন অভিনীত চলচ্চিত্রের গান।

এখানেও দর্শকদের ভোট এবং বিচারকদের ভোটে সেরা ২০ জনকে বাছাই করা হবে। সেমিফাইনালে সেরা ২০ জন থেকে ১০ জনকে বাছাই করে ফাইনাল রাউন্ডের জন্য মনোনীত করা হবে। সেরা ১০ জন নিয়ে হবে গ্রুমিং রাউন্ড। গ্রুমিং রাউন্ড শেষে সেরা ১০ জন গাইবে ফাইনাল রাউন্ডে।

বিচারকদের রায় ও দর্শকদের অনলাইন ভোটে নির্বাচন করা হবে সেরা তিন। সেরা তিনজনকে নিয়ে মৌলিক মিউজিক ভিডিও নির্মাণ করা হবে। ‘এমএম লাইভ সিঙ্গারস অব লাইফ’ সেরা ৩ জনের জন্য রয়েছে ১০ হাজার মালয়েশিয়ান রিঙ্গিত (বাংলাদেশি ২ লাখ টাকা) সমমানের পুরস্কার এবং সেরা ২০ জনকে ক্রেস্ট, সার্টিফিকেট ও আকর্ষণীয় গিফট দেয়া হবে।

এই প্রতিযোগিতায় থাকছে দর্শকদের জন্য পুরস্কার। অনলাইন ভোটে অংশগ্রহণকারী দর্শকদের মধ্য থেকে লটারির মাধ্যমে তিনজনকে ১০ হাজার রিঙ্গিত (বাংলাদেশি ২ লাখ টাকা) সমমানের আকর্ষণীয় পুরস্কার প্রদান করা হবে। আয়োজকরা জানান, পৃথিবীর যে কোনো প্রান্ত থেকে দর্শকরা এই ভোটে অংশ নিতে পারবেন।

পূর্বকোণ/টিএফ

The Post Viewed By: 140 People