চট্টগ্রাম শনিবার, ১৩ আগস্ট, ২০২২

সর্বশেষ:

৮ আগস্ট, ২০১৯ | ১:২৭ পূর্বাহ্ণ

চট্টগ্রামের বিখ্যাত মেজবানি মাংস

অনেকের ধারণা বাসায় এত মজা করে মেজবানি মাংস রান্না করা অসম্ভব। তাদের জন্য আশার বাণী হল মেজবানি মাংস বাসায় রান্না করলেও বাবুর্চির হাতে রান্নার টেস্ট পাবেন। আজ তেমনই একটা রেসিপি আপনাদের জন্য।
উপকরণ: ২-৩ কেজি গরুর মাংস ছোট ছোট টুকরো করে কাটুন এবং ভাল করে ধুয়ে পানি ঝরিয়ে নিন। মোটামুটি এক কেজি পেঁয়াজ, অর্ধেক কুচি করা বাকি অর্ধেক বাটা, ১০০ গ্রাম আদাবাটা এবং ১০০ গ্রাম রসুন বাটা, ২/৩ চামচ হলুদ মরিচ, ১ চামচ শাহি জিরা এবং ধনিয়া গুড়া, ৫০ গ্রাম সাদা সরিষাবাটা, ৫০ গ্রাম চিনাবাদামবাটা, ২০০ গ্রাম নারকেলবাটা, কাশ্মীরি শুকনা মরিচ। এতে ঝালের চেয়ে রংটা সুন্দর আসে, ১ কেজি সরিষার তেল, লবণ স্বাদমত, ঝালের জন্য ১০-১২ টা কাঁচামরিচ দিতে পারেন। ১ টেবিলচামচ চিনি এবং ৫/৬ টা তেজপাতা, ৫/৬ টা ভাজা আলু দিতে পারেন আপনার ইচ্ছামত।
এখন আমরা একটা স্পেশাল মসলার কথা বলবো যেটাকে বলতে পারেন মেজবানি মাংসের প্রাণ। স্পেশাল এই মশলার জন্যই মেজবানি মাংস এতটা স্পেশাল। চলুন দেখে নেই কিভাবে ঘরে বসেই তৈরি করবেন এই মশলা ৫-৬ টা লবঙ্গ, ৩-৪ টা এলাচ, ৩ টুকরো দারুচিনি, ২/৩ চামচ জয়ত্রি, ২/৩ চামচ পোস্তদানা, জায়ফল, গোলমরিচ ৬/৭ টা। এবার সব একসাথে পানি দিয়ে বেটে পেস্ট করে নিন।
প্রস্তুত প্রণালি : চিনি, পেঁয়াজ কুচি আর তেজপাতা বাদে বাকি সকল উপকরণ দিয়ে মাংস মাখিয়ে নিন এবং ১ ঘন্টা রাখুন। একটা কড়াইয়ে তেল দিন এবং তেল তপ্ত হওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করুন। এরপর কুচানো পেঁয়াজ এবং তেজপাতা দিয়ে হালকা লাল না হওয়া পর্যন্ত ভাজতে থাকুন। এবার মাখান মাংসটা ঢেলে দিন। ৫-৬ মিনিট কষান। এবার বেশি করে পানি দিয়ে ঢেকে দিন। মাংস অল্প আঁচে সেদ্ধ করুন। মনে রাখবেন ঢাকনাটা যেন ভাল করে বন্ধ করা থাকে। সেদ্ধ হলে ভাজা আলু দিয়ে নামিয়ে ফেলুন। হয়ে গেল সুস্বাদু মেজবানি মাংস, গরম ভাত কিংবা পরোটা দিয়ে খেতে পারেন

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট